আইপিএলে শেষ চারের দৌড়ে কারা এগিয়ে, চূড়ান্ত লড়াই ৩ দলের

ক্রিকেট খেলাধুলা

রোববার (৬ মে) আইপিএলে মোটে দুটি খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিনের প্রথম খেলায় মুখোমুখি হয়েছে কেকেআর ও মুম্বাই। ম্যাচটিতে রোহিত শর্মার দল ১৩ রানে জয় লাভ করে। ফলে তাদের শেষ চারের যাত্রা অনেকটা সুপ্রসন্ন হল। দিনের অন্য ম্যাচে লড়েছে দিল্লি ও পাঞ্চাব। ম্যাচটি রাহুলের একার চেষ্টায় জয়ের মুখ দেখে পাঞ্চাব।

আর সোমবার (৭ মে) ৩৯তম ম্যাচে লড়বে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে আটটায় শুরু হওয়া ম্যাচটি বেঙ্গালুরুর জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ শেষ চার নিশ্চিতের জন্য এই ম্যাচটি তাদের যে কোন মূল্যে জেতা লাগবেই। অন্যদিকে পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে থাকা হায়দরাবাদীদের জন্যও কম গুরুত্বের নয়। শীর্ষস্থান অটুট রাখার মিশনে চেন্নাইয়ের সঙ্গে টেক্কা দেয়ার জন্য হলেও সুবিধা লুটতে চাইবে দলটি।

অাট দলের আমলনামা।

সে আর যাই হোক, বলতে হয় আইপিএল এখন প্রায় শেষের দিকে অবস্থান করছে। আর এখন প্রতিটি দলের চিন্তা শেষ চার নিশ্চিত। শেষ চার নিশ্চিতের লড়াইয়ে এখন পর্যন্ত এগিয়ে চেন্নাই ও হায়দরাবাদ। দুই দলেরই জয় সাতটি করে। এমনকি তাদের হাতে বাকি রয়েছে আরো ৪-৫টি ম্যাচ। তাই বলা যায় পয়েন্ট টেবিলে টপ লেভেলে তাদের অবস্থান অনেকটা সুনিশ্চিত।

এখন কথা হলো, টপ চারের দুই দল নিশ্চিত হলেও তৃতীয় ও চতুর্থ নাম্বারে থাকছেন কারা। এ নিয়ে কম কানা-ঘুষা হচ্ছে না। পাঞ্চাব সমর্থকরা বলছেন, রাহুল-গেইলের হাত ধরে হায়দরাবাদ-চেন্নাইয়ের পরে থাকবে পাঞ্চাব। আবার কেকেআর ভক্তদেরও একই সুর।  পিছিয়ে নেই মুম্বাই-বেঙ্গালুরুর সমর্থকরাও।

লড়াই তিন দলের
আইপিএল সিজন ইলেভেনের প্লে-অফ নিশ্চিতের লড়াইয়ে ব্যাট-বলের যুদ্ধ হবে কেকেআর-মুম্বাই ও বেঙ্গালুরুর মাঝে। এদিকে প্লে-অফে নিশ্চিতের লক্ষ্যে মুম্বাই ও কেকেআরের হাতে রয়েছে চারটি ম্যাচ। বর্তমান পয়েন্ট টেবিলে তাদের অবস্থান চার ও পাঁচে। কলকাতা ১০ ম্যাচে পাঁচটিতে জয়ের মুখ দেখেছে, অন্যদিকে মুম্বাই চারটিতে।

গেইল-রাহুলের হাত ধরে এবার চমক দেখাতে পারে পাঞ্চাব।

এবার আসি কোহলির বেঙ্গালুরু প্রসঙ্গে।  চলতি আসরে বেঙ্গালুরু প্লে-অফ নিশ্চিতের অন্যতম দাবিদার। শেষ চারের দৌড়ে তাদের হাতে আছে আরো পাঁচটি ম্যাচ। অর্থাৎ অন্তত টানা চারটি ম্যাচ জিতলে অন্ধকার নেমে আসবে কেকেআর ও মুম্বাই শিবিরে। কোহলির টিমের জন্য সত্যি আফসোস হচ্ছে, বিশ্বসেরা এবি ডি ভিলিয়ার্স, ডি কক, ম্যাককালাম ও চাহালের মতো তারকাকের ভিড়িয়েও ফয়দা লুটতে পারছে না দলটি। তারপরও দেখার বিষয় শেষ মুর্হুতে কতটুকু চমক দেখায় দলটি।