আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলেন অনন্ত

ইসলাম

ব্যবসার পাশাপাশি অনন্ত জলিল বর্তমানে ধর্ম প্রচারেও সরব। কিছুদিন আগে জানিয়েছিলেন তরুণ প্রজন্মকে পথ দেখাতে সাহাবিদের জীবনী ভিত্তিক সিনেমা বানাবেন। এবার জানালেন, ওই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন। কেন?

অনন্ত এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন নিজের ফেসবুক পেজে।

তিনি লেখেন, ‘আমি আল্লাহর রহমতে ও আপনাদের দোয়ার বরকতে, আলহামদুলিল্লাহ দ্বীনের রাস্তায় চলার চেষ্টা করতেছি এবং শিখতেছি। কিছুদিন আগে বলেছিলাম, আমি সাহাবিদের জীবনী নিয়ে একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করব, যাতে করে ইয়াং জেনারেশন আরো বেশি সাহাবিদের জীবন সমন্ধে অবগত হতে পারে। যেহেতু আমি দ্বীনের রাস্তায় নতুন, তাই আলেম-ওলামাদের সাথে পরামর্শ করে জানতে পারলাম যে, সাহাবিদের জীবনী নিয়ে সরাসরি চলচ্চিত্র নির্মান করা জায়েজ নহে।’

অনন্ত আরো বলেন, ‘মিডিয়ার মাধ্যমে সঠিক ইসলাম ইয়াং জেনারেশনের মধ্যে প্রচার করাই আমার মূল লক্ষ্য।’

তার ভাষ্যে, ‘মিডিয়ার মাধ্যমে খুব দ্রুত তথ্য অনেক মানুষের কাছে পৌছে দেয়া যায়। আমরা জানি, সঠিক ইসলামের জ্ঞান না থাকার কারণে কিছু পথভ্রষ্ঠ মানুষ আমাদের ইয়াং জেনারেশনকে ইসলামের নামে বিপদগামী করছে। ইসলাম হচ্ছে শান্তির ধর্ম, ইসলামে সন্ত্রাসের কোন জায়গা নেই। তাই আমি আলেম-ওলামাদের সাথে পরামর্শ করে মিডিয়ার মাধ্যমে কিভাবে সঠিকভাবে ইসলাম প্রচার করা যায় তার চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ।’

২০১০ সালে ঢাকাই ছবিতে অভিষিক্ত হন অনন্ত জলিল। তার অভিনীত ছবিগুলো- খোঁজ দ্য সার্চ, হৃদয় ভাঙা ঢেউ, দ্য স্পিড, মোস্ট ওয়েলকাম, মোস্ট ওয়েলকাম টু ও নিঃস্বার্থ ভালোবাসা। এছাড়া অনন্ত জলিল ‘দ্য স্পাই’ ও ‘সৈনিক’ নামে দুটি ছবি নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন অনেক আগেই। এখনও ছবি দুটির কাজ শুরু হয়নি।