Home > খেলাধুলা > ক্রিকেট > ‘আফ্রিদি আফ্রিদি’ শ্লোগান তুলল জনতা ধোনিকে দেখে…

‘আফ্রিদি আফ্রিদি’ শ্লোগান তুলল জনতা ধোনিকে দেখে…

ক্রিকেট খেলাধুলা

অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন ভারতীয় সেনাবাহিনীর অনারেবল লেফটেন্যান্ট জেনারেল ও ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ছবি: সংগৃহীত

(ডিবিএন২৪.কম) নাম তার নাম মহেন্দ্র সিং ধোনি। এই ব্যক্তিকে চেনেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। কিন্তু সেই ধোনিকে দেখে যখন ‘আফ্রিদি আফ্রিদি’ শ্লোগান শুরু হয়, তখন কিছুটা অবাক হতেই হয়। এমনটাই ঘটেছে ভারত অধ্যুষিত জম্মু ও কাশ্মীরে।

অনুষ্ঠানে ধোনির অটোগ্রাফ নিচ্ছেন এক ভক্ত। ছবি: সংগৃহীত

অনুষ্ঠানে ধোনির অটোগ্রাফ নিচ্ছেন এক ভক্ত। ছবি: সংগৃহীত

গেল রোববার এমন ঘটনার মুখোমুখি হন ভারতের সাবেক অধিনায়ক ধোনি। এদিন ধোনি কাশ্মীরের বারামুলা জেলার কুঞ্জারে গিয়েছিলেন সেনাবাহিনী আয়োজিত স্থানীয় ক্রিকেট লিগের ম্যাচে প্রধান অতিথি হিসাবে। চিনার প্রিমিয়ার লিগের এই ম্যাচে এসেই ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ককে শুনতে হয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দী দেশ পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি নামে বন্দনা। মাঠে প্রবেশ করার সাথে সাথেই এক দল লোক চিৎকার করতে থাকেন আফ্রিদি আফ্রিদি বলে।

অনুষ্ঠানে ধোনির অটোগ্রাফ নিচ্ছেন এক ভক্ত। ছবি: সংগৃহীত

অনুষ্ঠানে ধোনির অটোগ্রাফ নিচ্ছেন এক ভক্ত। ছবি: সংগৃহীত

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো থেকে জানা যায়, এটি খুবই সামান্য ঘটনা। কিন্তু এই ঘটনা নিয়ে ভারতীয়দের মধ্যে তোলপাড় শুরু হয়েছে। সংবাদমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। কারণ ধোনি একজন ক্রিকেটারের পাশাপাশি ভারতীয় সেনাবাহিনীর অনারেবল লেফটেন্যান্ট জেনারেলও।

যদিও সেই অনুষ্ঠানে এ বিষয়ে মুখ খোলেননি ধোনি। উল্টো ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ আয়োজনের ব্যাপারে কথা বলেন তিনি। দুই দেশের মধ্যে ভাতৃত্ববোধের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ক্রিকেটে ভারত-পাক দ্বৈরথ সবসময়ই রোমাঞ্চকর ও উপভোগ্য। তাড়াতাড়িই দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজনের ব্যাপারে দুই দেশের সরকারের সিদ্ধান্তে আসা উচিত। এটা ক্রিকেটের জন্যই ভালো হবে।

ভারতীয় সেনা আয়োজিত ক্রিকেট লিগে এমন ঘটনা স্বাভাবিক ভাবেই সরকারি মহল পর্যন্ত পৌঁছে গেছে। কাশ্মীর নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধ চলছে। ধোনির এই ঘটনা সেই যুদ্ধে যে আরও রশদ যোগাবে তা স্পষ্টই বোঝা যায়।