আবরারকে ‘মুক্তচিন্তায়’ আর কেউ বাধা দেবে না

আলোচিত সংবাদ প্রধান খবর বাংলাদেশ

দেশের অন্যতম সেরা বিদ্যাপীঠ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) ভর্তি হয়েছিলেন আবরার ফাহাদ। আর সেই সেরা বিদ্যাপিট থেকে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরলেন আবরার। এরপর চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন পারিবারিক কবরস্থানে।

আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় পারিবারিক কবরস্থানে আবরারের দাফন সম্পন্ন হয়। তার আগে সকাল ১০টায় কুষ্টিয়ার রায়ডাঙ্গা গ্রামের কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে বিপুলসংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে আবরারের তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

আবরারের জানাজায় উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষক অংশ নেন। প্রায় পাঁচ হাজার মানুষের উপস্থিতে কানায় কানায় ভরে যায় ঈদগাহ ময়দান।

জানাজায় সমবেতদের উদ্দেশে কথা বলেন আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ্‌। এসময় অনেকেই আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন।

উল্লেখ্য, গত রোববার দিবাগত রাত তিনটার দিকে বুয়েটের শের-ই-বাংলা হলের একতলা থেকে দোতলায় ওঠার সিঁড়ির মাঝ থেকে আবরারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। জানা যায়, ওই রাতেই হলটির ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা।