আবার ভেঙে যাচ্ছে পাকিস্তান?

আন্তর্জাতিক

পাকিস্তান ভেঙে প্রায় পাঁচ দশক আগে জন্ম হয়েছিল স্বতন্ত্র রাষ্ট্র বাংলাদেশের। নানা বৈষম্যের কারণে তৎকালীন পূর্বপাকিস্তানের (বর্তমান বাংলাদেশ) নির্যাতিত মানুষ স্বাধীনতা ঘোষণা করে এবং দীর্ঘ ৯ মাস যুদ্ধ করে স্বাধীনতা অর্জন করে।

তৎকালীন পূর্বপাকিস্তানের প্রতি পশ্চিম পাকিস্তানের শাসক গোষ্ঠী যে বৈষাম্য ও নিপীড়ন চালিয়েছিল তা পাকিস্তানের বর্তমান শাসকদের মুখ থেকে অকপটে বেরিয়ে আসছে। কিছু দিন আগে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তার বক্তব্যে বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

প্রায় ৫০ বছর পর একই ধরণের পরিস্থিতির মুখে পড়েছে পাকিস্তান। বেলুচিস্তান এলাকার মানুষ স্বাধীনতার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন।

তবে পাকিস্তানে দ্বিতীয় কোনো বাংলাদেশ হতে দেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) কো-চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারি।

শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সিন্ধ প্রদেশের সাঙ্গির জেলার তান্দো আদম শহরে সিনেটর ইমামুদ্দিন সৌকিনের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে জারদারি বলেছেন, পাকিস্তানের ভেতরে আর একটি নতুন বাংলাদেশ সৃষ্টি হতে দেবে না তাঁর দল।

আসিফ আলী জারদারি বলেন, একটি যুদ্ধ বিজয়ের মাধ্যমে ‘তাঁরা’ পাকিস্তান সৃষ্টি করেননি। পাকিস্তান সৃষ্টি করেছেন ‘আমাদের’ পূর্বপুরুষেরা। আমার পূর্বপুরুষদের একটি স্কুলে পড়াশোনা করেছিলেন পাকিস্তানের জাতির পিতা কায়েদে আযম। তিনিই রাজনৈতিক সংলাপের মধ্য দিয়ে পাকিস্তানের স্বাধীনতা এনেছেন।

দেশটির অনলাইন এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের খবরে বলা হয়েছে, সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আসিফ আলী জারদারি বলেন, ভারতের নেতারা তিন দশক ধরে পাকিস্তানকে ভাগ করার পরিকল্পনা করে আসছে। মুসলমানেরা কংগ্রেসের সাবেক প্রধান মাওলানা আবুল কালাম আজাদকে সম্মান করেন। কিন্তু তিনিও ষড়যন্ত্রকারীদের মধ্য অন্যতম। তবে এই সময়ে আমরা পাকিস্তানের ভেতরে আর একটি বাংলাদেশ সৃষ্টি হতে দেব না।