আর্জেন্টিনা দলে আসছে বড় পরিবর্তন!

খেলাধুলা প্রধান খবর ফুটবল

৩২ বছর যাবত বিশ্বকাপের সোনালী ট্রফিটা উঁচিয়ে ধরতে পারছে না আর্জেন্টিনা। তার উপর ধারনা করা হচ্ছে বিশ্বসেরা ফুটবলার লিওনেল মেসির এটাই শেষ বিশ্বকাপ। তাই রাশিয়া বিশ্বকাপ জিততে মরিয়া টিম আর্জেন্টিনা। কিন্তু বিশ্বকাপ মিশনের শুরুতেই বড় ধাক্কা খেয়েছে আর্জেন্টিনা। নিজেদের প্রথম ম্যাচে নবাগত আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপ জয় তো দূরে থাক আলবিসেলেস্তাদের এখন যত চিন্তা গ্রুপ-পর্ব টপকানো নিয়ে।

আইসল্যান্ডের বিপক্ষে হতাশাজনক ফলের পর দ্বিতীয় ম্যাচেই দলে বড় পরিবর্তন আনতে যাচ্ছেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। গ্রুপর্বে আর্জেন্টিনার পরের ম্যাচ বৃহস্পতিবার, ‘ডার্ক হর্স’ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে। যে ম্যাচটিকে গ্রুপের সবচেয়ে কঠিন ম্যাচ মনে করা হচ্ছে। আইসল্যান্ডের মতো দলের বিপক্ষে ড্রয়ের পর তাই নতুন করেই ভাবতে হচ্ছে সাম্পাওলিকে।

পরের ম্যাচে যে বড় পরিবর্তন আসছে, সেটা বোঝা গেল মেসিদের ট্রেনিং সেশনেই। পরিবর্তিত দল নিয়েই অনুশীলন চালাতে দেখা গেছে সাম্পাওলিকে। তার নতুন করে দলে সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার তিনজন। নিকোলাস অটামেন্ডিকে সঙ্গ দেবেন নিকোলাস তাগিলাফিকো এবং গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো। প্রথম ম্যাচে মার্কোস রোহোর বাজে পারফরম্যান্সের কারণে তাকে এ দলে রাখা হয়নি।

সাম্পাওলির পরিবর্তিত দলে রাখা হয়নি অভিজ্ঞ অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়াকে এবং লুকাস বিগলিয়াকেও একাদশের বাইরে রাখছেন সাম্পাওলি। তাদের জায়গায় উইংব্যাক হিসেবে খেলবেন মার্কোস আকুনা এবং এদুয়ার্দো সালভিও। দলে ঢুকতে পারেন ক্রিস্টিয়ান পাভন। ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডে যথারীতি থাকছেন হাভিয়ের মাচেরানো। বাকি দল অবশ্য ঠিক থাকছে। হিগুয়েন কিংবা দিবালা থাকতে পারে পরিবর্তিত খেলোয়াড় হিসেবে।

দলে পরিবর্তনের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে ডিফেন্ডার গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা বিভিন্ন পদ্ধতিতে কাজ করেছি। উইংয়ে কিংবা মাঝখানে পাঁচজনের একটি লাইন বানিয়েছি আমরা। প্রতিটি ম্যাচেই কিছু না কিছু দরকার হয় এবং তা যদি পাঁচজনের লাইন হয়, তাহলে আমরা এটিই করবো। যদি এটা চারজনের লাইন হয়, তবে তাই করবো। আমাদের হাতে সময় অল্প এর যা করার এর মধ্যেই করতে হবে।’