আর অভিনয়ে দেখা যাবে না রুনা লায়লাকে

ঢালিউড বিনোদন

রুনা লায়লা, একজন কিংবদন্তি সংগীতশিল্পীর নাম। উপমহাদেশের প্রখ্যাত এই শিল্পী প্রায় অর্ধশত বছর ধরে গানপ্রেমীদের হৃদয়ছোয়া গান উপহার দিয়ে চলেছেন। শুধু দেশেই নয়, বাহিরেও রয়েছে তার অসংখ্য ভক্ত। গান করেছেন প্রায় ১৮টি ভাষায়।

গানের এই পাখিকে দেখা গিয়েছিলো একটি চলচ্চিত্রেও। চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত ছবিটির নাম ‘শিল্পী’। মুক্তি পায় ১৯৯৭ সালে। তারপর আর কোনো চলচ্চিত্রে দেখা যায়নি তাকে।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) রুনা লায়লার স্বামী ও অভিনেতা আলমগীরের নতুন ছবি ‘একটি সিনেমার গল্প’র সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে হাজির হয়েছিলেন ১০ হাজারেরও বেশি গানে কণ্ঠ দেওয়া এই গুণী সংগীতশিল্পী।

সেখানে রুনা লায়লাকে প্রশ্ন করা হয়, আপনাকে আর অভিনয়ে পাওয়া যাবে? উত্তরে তিনি বলেন, “আর না। অভিনয় আর করা হবে না।”

দীর্ঘ সংগীত জীবনে রুনা লায়লাকে কখনও সুরকার হিসেবে পাওয়া যায়নি। এবারই প্রথম তাকে কোনো গানে সুর করতে দেখা যাবে।

বরেণ্য গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা ‘গল্প কথার ঐ কল্পলোকে জানি/ একদিন চলে যাবো, কোথায় শুরু আর শেষ হবে কোথায়/ সে কথা বলে যাবো’ এমন জীবন ঘনিষ্ঠ গানটির সুর করেছেন তিনি।

গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন আঁখি আলমগীর। গানটি শুক্রবার (১৩ এপ্রিল) মুক্তির প্রতীক্ষায় থাকা ‘একটি সিনেমার গল্প’ ছবিতে ব্যবহৃত হয়েছে।

সুর করা প্রসঙ্গে রুনা লায়লা বলেন, “কখনো ভাবিনি গানে সুর করবো। আঁখির অনুরোধে গানটিতে সুর করেছি। তবে গানটি যখন করি তখন জানতাম না এটি সিনেমায় ব্যবহার করা হবে। আলমগীর সাহেব গানটি শুনে পরে ‘একটি সিনেমার গল্প’-এ গানটি দিলেন।”