একটু পরে পাঞ্জাবের মুখোমুখি হচ্ছে কলকাতা, দেখেনিন পরিবর্তিত একাদশ…

ক্রিকেট খেলাধুলা

আইপিএলের ১৮তম ম্যাচে ক্রিস গেইলের কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মুখোমুখি হবে কলকাতা নাইট রাইডার্স।পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে আছে কলকাতা আর চতুর্থ স্থানে আছে পাঞ্জাব। যদিও দুই দলের পয়েন্ট সমান। শনিবার (২১ এপ্রিল) বিকেলে কলকাতার মাঠ ইডেনে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে চারটায়। গেইল,মিলার, লোকেশ রাহুল ও মুজিবদের নিয়ে আত্মবিশ্বাসী পাঞ্চাব। অন্যদিকে দারুণ ফর্মে রয়েছেন গেইল। ফলে পাঞ্জাবের আত্মবিশ্বাস আরো তুঙ্গে।

বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪.৩০ মিনিটে  কলকাতার মাঠ ইডেনে মুখোমুখি হবে দু‘দল।খেলাটি সরাসরি সম্প্রচার করবে বাংলাদেশি চ্যানেল নাইনসহ, স্টার স্পোর্টস, স্টার জলসা ও স্টার মা।
মাঠে নামরা আগে দেখে নেওয়া যাক কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের খুঁটিনাটি বিষয়াদি।

পরিবর্তন:

এই ম্যাচে পাঞ্জাবের একাদশে পরিবর্তন নাও হতে পারে।কারণ উইনিং কম্বিনেশ নিয়ে মাঠে নামতে চাইবে দলটি।

পজিশন:
ওপেনিংয়ে ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইলে সাথে থাকবে আইপিএলের সবচেয়ে দ্রুত গতির হাফ সেঞ্চুরিয়ান লোকেশ রাহুল। ধ্বংসাত্মক ব্যাটিং করার জন্য দু‘জনের বেশ সুখ্যাতি রয়েছে। হায়দরাবাদের বড় হুমকি হতে পারে পাঞ্চাবের ওপেনিং জুটি। তিন নম্বরে মায়াঙ্ক আগারওয়াল। মিডল অর্ডারে পরীক্ষিত যুবরাজ সিং ও করুণ নায়ার। লেট মিডল অর্ডারে রয়েছে কিলার খ্যাত মিলার। টি-২০ ক্রিকেটের জন্য আদর্শ একটি ব্যাটিং অর্ডার রয়েছে পাঞ্চাবের। তাই পরীক্ষা দিতে হবে কেকেআরের বোলারদের।

ট্রাম্প কার্ড:
পাঞ্চাব দলে সবচেয়ে বড় চমক আফগানি মুজিব-উর রহমান। মূলত অফ স্পিনার হলেও দুই দিকেই সুইং করানোর ক্ষমতা রাজে মুজিব। কেকেআরের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে বড় তারকা রাসেল। তবে রাসেলেল জন্য বড় হুমকি হতে পারে মুজিবের স্পিন।  ভারসাম্যপূর্ণ একাদশ নিয়েও তাই মুজিব-অশ্বিনকে নিয়ে আলাদা করে ভাবতে হবে দীনেশ কার্তিকদের। অন্যদিকে ছক্কা দানব ক্রিস গেইল অশ্বিনের ব্যাটিং অর্ডারের সবচেয়ে বড় অস্ত্র।

অধিনায়ক:
রবিচন্দ্রন অশ্বিন

হেড টু হেড:
ম্যাচ:  ২১

কিংস ইলেভেন পাঞ্চাব: ৭
কলকাতা নাই রাইডার্স:১৪

বিদেশি কোটায় চার ক্রিকেটারঃ ক্রিস গেইল, ডেভিড মিলার, আন্ড্রে টাই, মুজিব-উর রহমান।

পাঞ্জাবের সম্ভাব্য একাদশঃ  লোকেশ রাহুল, ক্রিস গেইল, অ্যারন ফিঞ্চ, মায়াঙ্ক আগারওয়াল, যুবরাজ সিং, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, করুন নায়ার, বারিন্দার স্রান, মোহিত শর্মা, মুজিব উর রহমান এবং অ্যান্ড্রু টাই।