এবারের বিশ্বকাপে চরম প্রতিপক্ষ দল পর্তুগাল এর মুখমুখি-স্পেন !

খেলাধুলা ফুটবল

রাশিয়া বিশ্বকাপের সবচেয়ে কঠিন গ্রুপ ধরা হচ্ছে ‘বি’ গ্রুপকে। কারণ গ্রুপটিতে রয়েছে স্পেন ও পর্তুগাল। এবারের বিশ্বকাপে সরাসরি জায়গা করে নিয়েছে ইনিয়েস্তা-পিকেরা। আলবেনিয়াকে হারিয়ে বাছাইপর্বের এক ম্যাচ হাতে রেখেই রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকেট পেয়ে যায় ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়নরা। স্পেনের কারণেই এবারের বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায় চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইতালি। প্লে অফেও জিততে পারেনি বুফনের দল।

সরাসরি বিশ্বকাপে উঠেছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগালও। ‘বি’ গ্রুপের বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে সুইজার‌ল্যান্ডকে ২-০ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপের টিকেট নিশ্চিত করে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দল। বাছাইপর্বে ১০ ম্যাচের নয়টিতেই জিতে রোনালদোর দল। বিশ্বকাপে উঠতে তাই খুব একটা সমস্যা হয়নি দলটির।

এবার একই গ্রুপে পড়েছে স্পেন ও পর্তুগাল। ২০১৮ সালের ১৫ জুন সোচিতে হবে এই দুই দলের ম্যাচটি। ২০১২ সালের ইউরোর পর দল দুটি একে অপরের মুখোমুখি হয়নি। সেই ম্যাচে অবশ্য জিতেছিল স্পেন। দুটি দলের সর্বশেষ ৩৬ সাক্ষাতে ১৭বার জিতেছে স্পেন। পর্তুগালের জয় ছয়টি ম্যাচে। ড্র হয়েছে ১৩টি ম্যাচ।

একে অপরের জন্য স্পেন-পর্তুগাল কঠিন প্রতিপক্ষ হলেও বাকি দল দুটিকে তুলনামূলকভাবে সহজ প্রতিপক্ষই বলতে হবে। দুই দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়েছে মরক্কো। গ্রুপের বাকি দলগুটি হলো মরক্কো ও ইরান।

বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে আইভরি কোস্টের সঙ্গে ড্র করলেই মরক্কোর বিশ্বকাপ খেলা নিশ্চিত হতো। তবে ম্যাচটি ২-০ গোলে জিতে পঞ্চমবারের মতো বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করে দেশটি। ১৯৯৮ সালের পর এবারই প্রথম বিশ্বকাপে খেলছে আফ্রিকার ফুটবলপাগল দলটি।

প্রতিপক্ষ হিসেবে ইরানও খুব একটা ভয়ঙ্কর নয়। বাছাইপর্বে অবশ্য দোর্দণ্ড প্রতাপ দেখিয়েছে এশিয়ার দেশটি। শেষ ১১ ম্যাচে একটি গোলও হজম করেনি ইরান।এমনকি পুরো বাছাইপর্বের একটি ম্যাচেও পরাজয়ের স্বাদ পেতে হয়নি দলটিকে। প্রথম এশিয়ান দল হিসেবে এবারের বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে ইরান।