এবার প্রতারণার শিকার অনলাইনে পণ্য বিক্রেতা! (সিসি ভিডিও)

অপরাধ ও দুর্নীতি ই-কমার্স প্রধান খবর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ভিডিও

সম্প্রতি অনলাইনে পণ্য বেচাকেনা বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। আর অনলাইন থেকে পণ্য কিনে ক্রেতাদের প্রতারিত হওয়ার কথা প্রায়ই শোনা যায়। কিন্তু এবার অনলাইনে বিক্রেতা প্রতারিত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতারণার শিকার হওয়া জিরো’স বিডি ডট কম নামের ওই অনলাইন শপের মালিক রাহাতুল ইসলাম থানায় অভিযোগ করেছেন।

রাহাতুল ইসলাম জানান, গত ১৭ নভেম্বর শুক্রবার জিরো’স বিডি ডট কম-এ শিউলি নামের এক নারী ১৬ হাজার ৮০০ টাকা দামের সাত সেট সালোয়ার-কামিজ অর্ডার করেন। তিনি ০১৭২৬২৭২১৩৬ নম্বর থেকে ফোন করে ঠিকানা দিয়ে অর্ডারটি নিশ্চিত করেন।

একইদিন সন্ধ্যা সাতটার দিকে জিরো’স বিডি ডট কম থেকে শিহাব নামের একজন ডেলিভারি ম্যান সালোয়ার-কামিজগুলো দিতে যান। ওই নারীর দেওয়া ঠিকানা অনুযায়ী তিনি রাজধানীর কনকর্ড লেকসিটির শ্রাবণী নামের এপার্টমেন্ট বিল্ডিংয়ে যান।

শিহাব বলেন, ‘‘আমি শ্রাবণী এপার্টমেন্ট বিল্ডিংয়ের গেটে পৌঁছানোর পর শিউলি নামের ওই নারীকে ফোন করি। আমাকে নিচেই দাঁড়াতে বলে দুই মিনিটের মধ্যে তিনি নিচে নামেন। এরপর আমার কাছ থেকে সাত সেট সালোয়ার-কামিজ বুঝে নেন। সেসময় টাকা চাইলে ওই নারী আমাকে বলেন, ‘আপনি দাঁড়ান আমি এখনই টাকা নিয়ে আসছি।’ কিন্তু পরে সে আর আসে নাই।’’

‘এরপর তাকে আমি অনেকবার ফোন করি। কিন্তু তার মোবাইল বন্ধ পাই। তারপরেও সন্ধ্যা সোয়া সাতটা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত ওই এপার্টমেন্ট বিল্ডিংয়ের গেটে অপেক্ষা করি। পরে কোনো সাড়া না পেয়ে অফিসে জানাই’, বলেন ডেলিভারি ম্যান।

এদিকে খবর পেয়ে জিরো’স বিডি ডট কমের মালিকপক্ষ খিলক্ষেত থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। রাতেই খিলক্ষেত থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গিয়াস উদ্দিন পুলিশ টিম নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। তারা শ্রাবণী অ্যাপার্টমেন্ট বিল্ডিংয়ের পাঁচতলার অফিস থেকে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেন। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ দেখেও ওই নারীকে ভবনটির কেয়ারটেকার পলাশ চিনতে পারেননি বলে জানান।

এ বিষয়ে খিলক্ষেত থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গিয়াস উদ্দিন প্রিয়.কম-কে বলেন, ‘ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত নারীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।’

জিরো’স বিডি ডট কমের মালিক রাহাতুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা এর আগে এ ধরনের প্রতারকের পাল্লায় পড়িনি।’

তার মতে, এভাবে অনেক অনলাইন শপ প্রতারণার শিকার হচ্ছে। কিন্তু কোনো প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না।

সিসিটিভি ফুটেজ

Gepostet von দোকলা দোকলা am Sonntag, 19. November 2017

সূত্র: প্রিয় ডটকম