এমন নজিরবিহীন কর্মকাণ্ডে নিরব কেন গেইলের স্ত্রী ?

ক্রিকেট খেলাধুলা

ক্যারিবীয়ন তারকাকে নিয়ে লিখতে বসে প্রথমেই সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণ জারি করে রাখা উচিত যে, লেখা মাঝেমধ্যে শালীনতার সীমানা লঙ্ঘন করতে পারে। আপত্তিজনক মনে হলে দু’তিনটি পঙ্‌ক্তি চোখ বন্ধ করে পেরিয়ে যাওয়াই শ্রেয়। অথবা ফিল্মের মতো শুরুতেই জানিয়ে রাখতে হবে— ছোটরা এড়িয়ে যাবেন, প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য! অশ্লীলতার দায় এড়িয়ে ক্রিকেটের বর্ণময় ক্যারিবীয়ান চরিত্রকে ব্যাখ্যা করা শুধু কঠিন নয়, অসম্ভব!

বিশ্বাস না-হলে চলুন তার ইনস্টাগ্রামে। তিন ধরনের ছবির ছড়াছড়ি সেখানে—

এক: জাকুজিতে বসে আরাম করছেন তিনি। হাতে সিগার। নারী পরিবৃত হয়ে!

দুই: বিশাল সিংহাসনে বসে আছেন রাজার মতো। অবশ্যই নারী পরিবৃত হয়ে!!

তিন: জামাইকায় নিজের বাড়িতে পুল-পার্টি চলছে। সুইমিং পুলের পাশে নাচছেন তিনি। অবশ্যই নারী পরিবৃত হয়ে!!!

ইনস্টাগ্রাম থেকে বেরিয়ে কোথায় যাবেন? তার বাড়িতে? এখানে  আরও বড় বিস্ময় অপেক্ষা করছে। কোনও ক্রিকেটার নিজের বাড়িতে ‘স্ট্রিপ ক্লাব’ বানিয়েছেন, কেউ শুনেছেন? জামাইকায় তার প্রাসাদোপম বাড়িতে রয়েছে। সপ্তাহান্তে সেখানে ক্রিকেটের দলগত বৈঠক হয় না, ‘পোল ডান্স’-এর আসর বসে। এমন নজিরবিহীন আয়োজন নিয়ে গৃহকর্তার কোনও সঙ্কোচ নেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই তিনি ক্লাবের ক্রিয়াকাণ্ডের ছবি তুলে দিয়ে দুনিয়াকে জানিয়ে দিচ্ছেন নিজস্ব সংস্কৃতি অনুযায়ী চলেন তিনি। আশেপাশের আবহ তাকে প্রভাবিত করতে পারে না।

তাহলে তিনি কি চিরকুমার? একেবারেই নয়। তিনি বিবাহিত, এক কন্যার পিতাও। বৃহস্পতিবার (১৯ এপ্রিল) মোহালিতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বোলারদের ঠেঙিয়ে এগারো ছক্কায় সেঞ্চুরি করার পরে দু’হাতে ব্যাট ধরে বাচ্চার দোলনা দোলানোর মতো ভঙ্গি করেছিলেন তিনি। সেঞ্চুরিটা মেয়ে অ্যালিনাকে উৎসর্গ করবেন বলেই এমন ভঙ্গি। মেয়ে এবং স্ত্রী তখন মোহালির ভিআইপি বক্সে বসে খেলা দেখছেন।

এবারের আইপিএলে প্রথমে কেউ তাকে কিনতে চায়নি। দু’দিন ধরে বিক্রি না-হওয়ার পরে নিলামের হাট-বাজার গুটিয়ে নেওয়ার অন্তিম লগ্নে বীরেন্দ্র শেবাগের পরামর্শে তাকে কিনে নেয় প্রীতি জিন্তার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। মোহালিতে তার এগারোটা ছক্কার প্রত্যেকটি যেন সশব্দে আছড়ে পড়ছিল নিলাম টেবিলের মাঝখানে।

অন্য কেউ হলে মোহালিতে সেঞ্চুরির পরে নিশ্চয়ই শেবাগের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলতেন, ‘আমার আইপিএল জীবনটা উনি বাঁচিয়ে দিলেন, ধন্যবাদ!’ কিন্তু ক্রিস গেল যে ‘অন্য কেউ’ নন। তিনি নিজেকে ডাকেন ‘ইউনিভার্স বস’ বলে। বিশ্বব্রহ্মাণ্ডেরই যে শাসক তিনি! মোহালিতে গেল-ঝড় ফিরিয়ে তাই বললেন, ‘‘বীরেন্দ্র শেবাগ আমাকে কিনে আইপিএলকে বাঁচিয়ে দিল!’’

১৯৭৯ সালে ক্যারিবীয়ন সাগর পাড়ের ছোট্ট শহর জ্যামাইকাতে জম্ম নেন বর্তমান সময়ের অন্যতম বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ক্রিস্টপার হেনরি গেইল।ক্রিকেট খেলে বছর ধরে মানুষকে আনন্দ দিলেও গেইলের শৈশবটা কেটেছে জ্যামাইকার রাস্তায়। দরিদ্র পরিবারে জম্ম নেওয়ার কারণে নাড়ির টানে রাস্তায়ঢ পড়ে থাকা প্লাস্টিকের বোতলে জীবন ধারণের উপায় খুঁজে নেন গেইল। যে রাস্তাতে দৈন্যপীড়িত শৈশবের উপায় খুঁজে পেলেন গেইল। সেই রাস্তাতেই ভবিষ্যতের ভাগ্য নির্ধারণ করলেন তিনি।

সুত্রঃ- গোনিউজ২৪/এএস