কপিল দেবের শূন্যের রেকর্ডে ভাগ বসালেন কোহলি!

ক্রিকেট খেলাধুলা

কপিল দেবের রেকর্ডের সাথে নিজের নাম জুড়ে গেলে কার না ভালো লাগে! আর রেকর্ডের পর রেকর্ড গড়ে যাওয়া বিরাট কোহলি তো অনেক দিক দিয়েই তাদের প্রথম বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে ছাড়িয়ে গেছেন। কিন্তু কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে বৃহস্পতিবার কপিলের যে রেকর্ডে ভাগ বসালেন তা নিয়ে কোহলি নিশ্চয়ই একরাশ হতাশা ছাড়া কিছুই প্রকাশ করবেন না। চাইবেন না এই নিয়ে আলোচনাও হোক। কারণ, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে ‘ডাক’ মেরেছেন কোহলি। এক ক্যালেন্ডার বছরে ভারত অধিনায়ক হিসেবে সর্বোচ্চ ৫টি শূন্যের ইনিংসের রেকর্ড এখন কপিল ও কোহলির। দুজনে সমানে সমান!

বৃষ্টিতে ইডেনের খেলা এই বন্ধ হয় তো সেই বন্ধ হয়। এই রিপোর্ট লেখার সময় আলোর অভাবে প্রথম দিনের খেলা শেষ ঘোষণা করা হয়েছে। ১১.৫ ওভার খেলা হয়েছে সব মিলিয়ে। তাতেই ১৭ রানে ৩ উইকেট নেই ভারতের।

তো টস হেরে ভারত ব্যাটিংয়ে নেমেছিল। সুরঙ্গা লাকমাল একের পর এক আঘাত হেনে গেছেন। ম্যাচের প্রথম বলেই লোকেশ রাহুলকে আউট করেছেন। সপ্তম ওভারে শিকার শিখর ধাওয়ান। আর ১১তম ওভারে সবচেয়ে বিপজ্জনক কোহলিকে তো ফেরালেন এলবিডাব্লিউর ফাঁদে ফেলে। ১১ বল খেলে কোনো রান নেই কোহলির!

এই বছর যে ৫বার ডাক মারলেন কোহলি তার দুটি করে টেস্ট এবং ওয়ানডেতে। আর একটি টি-টুয়েন্টিতে। এটা আবার দুই দলের বিপক্ষে। ৩টি অস্ট্রেলিয়ার সাথে, দুটির প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। ১৯৮৩ সালে অধিনায়ক থাকার সময় কপিল ৫টি ডাক মেরে রেকর্ড গড়েছিলেন। ১৯৭৬ সালে বিশেন সিং বেদি ৪বার শূন্য রানে আউট হয়েছিলেন। সৌরভ গাঙ্গুলী ২০০১ ও ২০০২ সালে এই অনাকাঙ্খিত তালিকায় নাম লিখিয়েছিলেন। ২০১১ সালে চারবার ডাক মেরে সেই তালিকায় আছেন এমএস ধোনিও।