কলকাতার বিপক্ষে দলের ব্যর্থতার দিনে কোহলি-ডি ভিলিয়ার্সদের ৪টি বড় অর্জন

ক্রিকেট খেলাধুলা

আইপিএলে প্রথম মুখোমুখিতে কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে চার উইকেটে হারিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।  ম্যাচটিতে নিজেদের সর্বোচ্চটুকু দিয়ে চেষ্টা করলেও হার এড়াতে পারেনি ব্যাঙ্গালুরু।

খেলার শেষ সমাধি জয় কিংবা হার।  তবে ম্যাচটিতে আপতদৃষ্টিতে চারটি বড় অর্জন হয়েছে কোহলি এন্ড কোংদের।

ছন্দময় ব্রেন্ডন ম্যাককালাম: আইপিএলের প্রথম ম্যাচে রানের ফোয়ারা লক্ষ্য করা গেছে নিউজল্যান্ড তারকা ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ব্যাটে।  ম্যাচটিতে

ইনিংসের শুরুতে ডি কক ফিরে গেলেও ব্যাট হাতে ২৭ বলে ৪৩ রানে দারুণ ইনিংস খেলেন তিনি।   নারিনের বলে আউট না হলে নিশ্চয় ইনিংসটা বেশ বড়সড় হতো তা সহজে অনুমেয়।

ভয়ঙ্কর রুপে এবি ডি ভিলিয়ার্স: ইনজুরি মুক্ত হয়ে দেশের পক্ষে টেস্ট সিরিজে ফিরেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার মারকুটে ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স।  রোববার (৮ এপ্রিল) কলকাতার বিপক্ষে ম্যাচটিতে নেমেই চার-ছক্কার ফুলঝুড়ি উপহার দেন ভিলিয়ার্স।   ৫ ছয় ও এক চারে মাত্র ২৩ বলে ৪৪ রান তুলেন তিনি।

শতভাগ চেষ্টা করেও হার এড়াতে পারেননি ক্যাপ্টেন কোহলি।

মানদ্বীপ সিংহের বাজিমাত: কলকাতার বিপক্ষে আসরের প্রথম ম্যাচে টপ অর্ডার ও মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের বিদায়ের পর শেষের দিকে অসাধারণ ইনিংস খেলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান মানদ্বীপ সিং।  দলের প্রয়োজনীয় মুর্হুতে মাত্র ১৮ বলে ৩৭ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।

ক্রিস ওকসের বোলিং গুণ: রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি ছিলেন ক্রিস ওকস।  ভয়ঙ্কর ক্রিস লিনের উইকেট তুলে আইপিএল যাত্রা শুরু করেন তিনি।

ব্যর্থতার দিনে দুটি মাইল ফলক:

ব্রেন্ডন ম্যাককালামের মাইলফলক: কলকাতার বিপক্ষে নামার আগে টি-২০ ফরম্যাটে নয় হাজার রানের মাইলফলক ছুঁতে নিউজিল্যান্ড তারকা ব্রেন্ডন ম্যাককালামের প্রয়োজন ছিল আট রান।   তবে ২৭ বলে ৪৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলে সেই মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি।

কোহলি ভিন্ন রকম অর্জন: কেকেআরের বিপক্ষে ১৫০ খেলার মাইলফলক অর্জন করেন ব্যাঙ্গালুরুর অধিনায়ক বিরাট কোহলি1