কাশ্মিরে বন্দুকযুদ্ধে ভারতীয় বিমানবাহিনী কমান্ডোসহ নিহত ৭

আন্তর্জাতিক

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে মুক্তিকামীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ভারতীয় বিমান বাহিনীর এক কমান্ডোসহ ৭ জন নিহত হয়েছেন। রবিবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

কাশ্মির

প্রতিবেদনে বলা হয়, শনিবার শ্রীনগর থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে হাজিন গ্রামে অভিযান শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী। পুলিশ জানায়, গোয়েন্দা তথ্যের ওপর ভিত্তি করে তারা অভিযান শুরু করেছিলো।

প্রাদেশিক পুলিশ প্রধান শিষ পল ভায়েদ বলেন, পাকিস্তান ভিত্তিক লস্কর-ই-তৈয়বা গ্রুপ সংশ্লিষ্ট এক গোষ্ঠীর ছয়জন সদস্যকে হত্যা করেছে পুলিশ। তিনি দাবি করেন, ‘নিহত ছয় সন্ত্রাসীই পাকিস্তানি নাগরিক।’

বিমান বাহিনীর সদস্যের নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক মুনির খান।

নিহত কাশ্মিরিদের খবর ছড়িয়ে পড়লে ভারত-বিরোধী স্লোগান নিয়ে রাজপথে নেমে আসে কাশ্মিরবাসী। পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে।

এর আগে শুক্রবার রাতে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত হয় মুক্তিকামী সেনা মুগিস আহমাদ মীর। তার সম্মানে শনিবার হাজার হাজার মানুষ শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে অংশ নেয়। তার বাড়ির সামনে রাত কাটায় অনেক তরুণ। সহিংসতা আশংকায় সেখানে কারফিউ জারি করে ভারত। স্কুল ও কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

১৯৮৯ সাল থেকেই কাশ্মিরের স্বাধীনতার দাবিতে লড়াই করছে সেখানকার অধিবাসীরা। এখন পর্যন্ত ভারতীয় সামরিক অভিযানে ৭০ হাজারেরও মতো মানুষ মারা গেছেন। ভারতের ৫ লাখ সেনা ওই এলাকায় অবস্থান করছে। তাদের অভিযোগ, পাকিস্তান কাশ্মিরবাসীদের অস্ত্র ও সামরিক প্রশিক্ষণ দিয়ে সন্ত্রাসী তৈরি করছে।