কৃতজ্ঞতায় কাঁদলেন সেলেনা গোমেজ (ভিডিও)

বিনোদন

গেল সেপ্টেম্বরে বিস্ময়কর তথ্য দিয়েছিলেন পপতারকা সেলেনা গোমেজ। লুপাস রোগ থেকে নিজেকে মুক্ত করার জন্য তার একটি কিডনি প্রতিস্থাপন করতে হয়েছে। আর সেটি দিয়েছেন তারই বান্ধবী টিভি অভিনেত্রী ফ্রান্সিয়া রাইসা!

২৫ বছর বয়সী এই তারকা জানান, চরম অসুস্থ অবস্থায় গ্রীষ্মের ছুটিতে তার কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয়। সেসময় মুহূর্তগুলো এবার একটি টিভি অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন এ তারকা। অনুষ্ঠানে তার পাশে ছিলেন বান্ধবী রাইসাও। সেলেনা উল্লেখ করেন, রাইসাই তাকে নতুন জীবন দিয়েছে। নইলে তার জীবন সংশয়ে পড়ে যেত।
পশ্চিমা চ্যানেল এনবিএস মূলত তাদের নিয়ে একটি বিশেষ প্রতিবেদন ও সাক্ষাৎকার প্রচার করেছে।
উক্ত অনুষ্ঠানে বন্ধুর অবদানে আপ্লুত হয়ে একপর্যায়ে কেঁদে ফেলেন সেলেনা।
বলেন, ‘যখন রাইসা জানলো, কিডনি ছাড়া আমি বাঁচব না, ও বেশি কিছু না ভেবে নিজেই রাজি হয়ে যায়। কিন্তু তার তো মা-বাবা আছে। তারা বিষয়টি কীভাবে নেবেন, এটাও চিন্তার বিষয় ছিল। তবে আংকেল-আন্টি আমাকে সন্তানের মতো পছন্দ করেন। তারা রাজি হয়ে যান।’
এদিকে রাইসা বলেন, ‘একদিন সেলেনা আমাদের বাসায় আসে। সে খুবই অসুস্থ ছিল, আমি দেখলাম সে পানির বোতলের ছিপিও খুলতে পারছে না। আমাদের সেদিন একটি প্রজেক্টের কাজ করার কথা ছিল। সে খুবই অসুস্থ ছিল। পরে তার শরীরের অবস্থার কথা আমাকে বলে। আমি তার কষ্টটা উপলব্ধি করতে পারছিলাম।’
ফ্রান্সিয়া রাইসা ‘দ্য সিক্রেট লাইফ অব দ্য আমেরিকান টিনএজার’ টিভি সিরিজের অভিনেত্রী। সেলেনা ও তিনি দীর্ঘদিনের বন্ধু।
অনুষ্ঠানে সেলেনা তার মা ও পালক পিতার অবস্থানও তুলে ধরেন। কথা বলতে বলতে তিনি বেশ কয়েকবার আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছিলেন।
সেলেনার সেই সাক্ষাৎকার দেখতে পারবেন নিম্নে:

https://youtu.be/NH_Q-fDw758