চুক্তি থেকে বাদ পড়ায় একবুক হতাশা নিয়ে যা বললেন সৌম্য সরকার

ক্রিকেট খেলাধুলা

বছর কয়েক ধরে বাংলাদেশ দল এত ভালো খেলছে, অথচ বিসিবি কিনা কাঁচি চালাল খেলোয়াড়দের চুক্তিতে! ১৬ থেকে চুক্তিভুক্ত খেলোয়াড়ের সংখ্যা নেমে এল ১০-এ। পরে ‘রুকি’ শ্রেণিতে যদি কেউ যোগ হনও, সেটি হবে তরুণদের মধ্য থেকে। খেলোয়াড়দের প্রতি এ ভারি অন্যায়।

সৌম্য সরকার এই মুহূর্তে সাতক্ষীরায়। বৃহস্পতিবার রাতে তাঁর মেজো ভাই পুষ্পেন সরকারের বিয়ে। পারিবারিক এই উৎসবের মধ্যেই পেয়েছেন দুঃসংবাদ। মন খারাপের দিনেও সৌম্যকে তাই হাসিমুখে থাকতে হচ্ছে। এ যেন ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার গতিতে ধেয়ে আসা বাউন্সারে বাউন্ডারি হাঁকানোর শর্ত! চুক্তি থেকে বাদ পড়ার কথা বলতেই সৌম্যর আপত্তি, ‘আমি তো ভুলেই গিয়েছিলাম, মনে করিয়ে দিলেন!’

চাইলেই তো আর বাস্তবতা অস্বীকার করা যায় না। সৌম্যও বাস্তবতা মেনে নিচ্ছেন। একই সঙ্গে ফিরে আসার চ্যালেঞ্জটাও নিচ্ছেন, ‘ভালো কিছু করতে পারিনি বলেই চুক্তিতে নেই। এমনভাবে ফিরতে চাই যাতে জাতীয় দলে জায়গাটা আর নড়বড়ে না হয়। ঘরোয়া ক্রিকেট কিছু রান করে ফিরলাম এমন নয়। এমনভাবে ফিরতে চাই যেন জাতীয় দলে ধারাবাহিক ভালো খেলতে পারি। এসব নিয়ে ভাবতে চাই না। আমার কাজ ভালো খেলা। সেটাতেই মনোযোগ রাখতে চাই।’