চেন্নাই বনাম হায়দরাবাদ লড়াইয়ে নজর থাকবে যাদের দিকে

ক্রিকেট খেলাধুলা

আইপিএল সিজন ইলেভেনের প্রথম কোয়ালিফায়র ম্যাচে মুখোমুখি হবে লিগ টেবিলের প্রথম ও দ্বিতীয় দল। সর্বশেষ তিন ম্যাচ হেরেও টেবিলের শীর্ষে থেকে মাঠে নামবে হায়দরাবাদ। অন্যদিকে নিজেদের শেষ ম্যাচ জয়ের সুখস্মৃতি নিয়ে মাঠে নামবে চেন্নাই। মাঠে নামার আগে এক নজরে দেখে নেওয়া যাক হাইভোল্টেজ এই ম্যাচটিতে পার্থক্য গড়ে দিতে পারে যারা।

আম্বাতি রাইডু: রাইডু হায়দরাবাদের বিপক্ষে তিনটি ম্যাচ সেরার পুরষ্কার পায় যার মধ্যে চলমান আসরে ২টি। চলমান আসরে সাকিবদের বিপক্ষে দুই দেখায় দুই বারই রাইডুর দাপটে হেরেছে হায়দরাবাদ। মুম্বাইয়ের বিপক্ষে সর্বোচ্চ চারটি ম্যাচ সেরার পুরষ্কার জেতার রেকর্ড আছে রাইডুর। চেন্নাইয়ের এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হায়দরাবাদের বিপক্ষে ৯ খেলায় ৫৫ গড়ে করেন ৩৮৫ রান। টি-২০ ফরম্যাটে রাইডুর একমাত্র শতকটিও হায়দরাবাদের বিপক্ষে। পরফরম্যান্স জানান দেয় আজও হায়দরাবাদের বিপক্ষে জ্বলে উঠতে পারে রাইডুর ব্যাট।

ডোয়াইন ব্রাভো: হায়দরাবাদের বিপক্ষে ৯ ম্যাচে ১৪ উইকেট শিকার করেন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার ব্রাভো। ব্যাভো ব্যাতিত হায়দরাবাদের বিপক্ষে একমাত্র মোহত শর্মা ১৪ উইকেট শিকার করেন। ব্যাটে-বলে সমান পারদর্শী এই অলরাউন্ডার আজ হায়দরাবাদের জয়ে সবচেয়ে বড় বাঁধা হতে পারে।

ধোনি: সানরাইজার্সদের বিপক্ষে ১২ ম্যাচে ৩৮৬ রান করা ধোনির গড় ৬৪.৩৩। চলতি আইপিএলে দূর্দান্ত ফর্মে রয়েছে এই ক্রিকেটার। নিজের দিনে যে কোন দলের জন্য ভয়ঙ্কর ধোনি।

ভুবনেশ্বকুমার: চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে আট ম্যাচে ভুবির শিকার সাত উইকেট। ইকোনমি মাত্র ৭.৫। চেন্নাইয়ের টপ অর্ডারদের আজ ভালোই পরীক্ষা নিতে পারেন ভারতের এই পেসার।

শিখর ধাওয়ান: ভারতের এই ওপেনার আইপিএল ক্যারিয়ারে চেন্নাইয়ের বিপক্ষে করেন ৫২৭ রান। দূর্দান্ত ফর্মে থাকা ধাওয়ান হতে হায়দরাবাদের ব্যাটিং অর্ডারের সবচেয়ে বড় অস্ত্র।

চেন্নাইয়ের বিপক্ষে রশিদ ও সাকিবের রেকর্ড খুব বেশি ভালো না হলেও বর্তমান সময়ে দারুণ ফর্মে রয়েছেন এই দুই বোলার। হায়দরাবাদের তুরুপে তাস হতে পারে এরা দু’জন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭.৩০ মিনিটে মুম্বাইয়ের ওয়াংখের স্টেডিয়ামে শুরু হবে ম্যাচটি। -ক্রিক ট্যা.