জানেন কি?অপরুপা সুন্দরী এই প্রেসিডেন্টের অজানা যত তথ্য!

আন্তর্জাতিক বিনোদন

রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে রবিবার (১৫ জুলাই) মাঠে নামে ক্রোয়েশিয়া ও ফ্রান্স। বিশ্বকাপে এইবারই প্রথম ফাইনালে উঠেছে ক্রোয়েশিয়া। মাত্র পঞ্চম বিশ্বকাপ খেলতে এসে বিশ্বজয়ের খুব কাছে পৌঁছেছিল দলটি কিন্তু সুযোগটা হাতে ধরা দিয়েও যেন দিলো না। স্বপ্নের কাপ স্বপ্নই থেকে গেল ক্রোয়েশিয়ার কাছে।

ম্যাচের শুরু থেকেই ছিল ক্রোয়েশিয়া খেলোয়াড়দের আধিপত্য। আর ফাইনাল খেলাটি সরাসরি মাঠে এসে উপভোগ করেছেন ক্রোয়েশিয়ার নারী প্রেসিডেন্ট কলিন্দা গ্রাবার-কিতারোভিচ।

বিশ্বকাপের এই আসরে সবার দৃষ্টি কেড়েছেন ক্রোয়েশিয়ার প্রথম নির্বাচিত নারী প্রেসিডেন্ট কলিন্দা গ্রাবার-কিতারোভিচ। ক্রোয়েশিয়ার প্রায় প্রতিটি ম্যাচে দেখা গেছে তাঁর উপস্থিতি। ক্রোয়েশিয়া দল মাঠে নামার পর ম্যাচে যে কোনো উত্তেজনার পর ক্যামেরা তার দিকেই তাক করে ধরে রাখতো ক্যামেরা ম্যানরা।

ক্রোয়েশিয়ার এই প্রথম নির্বাচিত নারী প্রেসিডেন্ট ১৯৬৮ সালের ২৯ এপ্রিল ক্রোয়েশিয়ার রিজিকা এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। ওই সময় যুগোস্লাভিয়ার অধীনে ছিল ক্রোয়েশিয়া। ১৯৯৬ সালে তিনি জ্যাকব কিতারভিচ নামের একজনকে বিয়ে করেন। ৫০ বছর বয়সী এ নারী দুই সন্তানের জননী। এক ছেলে ও এক মেয়ের মা কোলিন্দা গ্রাবার-কিতারোভিচ। তাদের বড় মেয়ে ক্যাটরিনার বয়স ১৭ বছর। আর ২০০৩ সালে তাদের সংসারে জন্ম নেয় পুত্র সন্তান লোকা। ২০১৫ সালে ক্রোয়েশিয়ার প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন কোলিন্দা গ্রাবার- কিতারোভিচ।