জেনেনিন ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ক্যাচ নেওয়া ১০ ক্রিকেটারের নাম

ক্রিকেটে ব্যাটিং এবং বোলিং, এই দুই ডিপার্টমেন্টের কোন একটি কিংবা উভয়টিতেই একজন ক্রিকেটার সামর্থ্যবান হন।  দুইয়ের কোন একটিতে নিজেকে প্রমাণ করেই দলে থাকতে হয় কিংবা দলে আসতে হয়।  কিন্তু ব্যাটিং বোলিংয়ের পাশাপাশি ফিল্ডিংটাও গুরুত্বপূর্ণ।  শুধুমাত্র ফিল্ডিং দিয়ে একজন ক্রিকেটারকে বিবেচনা না করা হলেও ব্যাটিং বোলিংয়ের পাশাপাশি বিশ্বসেরা ফিল্ডার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারায় একটা গৌরব আছে।

বিশ্বের অন্যতম সেরা ফিল্ডার হিসেবে

জন্টি রোডস নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেলেও সবচেয়ে বেশি ক্যাচের তালিকায় সেরা ১৫ তেও তার নাম নেই।  তবে ক্যারিয়ারে ৭০ কিংবা ততোধিক ক্যাচ নিয়েছেন এমন ক্রিকেটারদের মধ্যে একমাত্র রোডসই ইনিংসে ৫টি ক্যাচ নেওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন।  ২৪৫টি ম্যাচ ১০৫টি ক্যাচ ধরেছেন।

ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ক্যাচ নিয়েছেন এমন ১০ জন ক্রিকেটারকে নিয়েই এই লেখা।
১।  মাহেলা জয়াবর্ধনে ৪৪৮টি ম্যাচ খেলে ২১৪টি ক্যাচ নিয়েছেন।
২।  রিকি পন্টিং ৩৭৫টি ম্যাচ খেলে ১৬০টি ক্যাচ নিয়েছেন।
৩।  মোহাম্মদ আজাহার উদ্দিন ৩৩৪টি ম্যাচ খেলে ১৫৬টি ক্যাচ নিয়েছেন।
৪।  শচিন টেন্ডুলকার ৪৬৩টি ম্যাচ খেলে ১৪০টি ক্যাচ নিয়েছেন।
৫।  স্টিফেন ফেমিং ২৮০টি ম্যাচ খেলে ১৩৩টি ক্যাচ নিয়েছেন।
৬।  জ্যাক ক্যালিস ৩২৮টি ম্যাচ খেলে ১৩১টি ক্যাচ নিয়েছেন।
৭।  উইনিস খান ২৬৫টি ম্যাচ খেলে ১৩০টি ক্যাচ নিয়েছেন।
৮।  মুত্তিয়া মুরালিধরণ ৩৫০টি ম্যাচ খেলে ১৩০টি ক্যাচ নিয়েছেন।
৯।  এল্যান বোর্ডার ২৭৩টি ম্যাচ খেলে ১২৭টি ক্যাচ নিয়েছেন।
১০।  শহিদ আফ্রিদি ৩৯৮টি ম্যাচ খেলে ১২৭টি ক্যাচ নিয়েছেন।

এছাড়াও রাহুল দ্রাবিড় ১২৪, সনাথ জয়সুরিয়া ১২৩, কার্ল হোপার ১২০, বায়ার্ন লারা ১২০, রস টেলর ১১৯, দিলশান ১১৮, ক্রিস গেইল ১১৭ এবং ইনজামামুল হক ১২৩টি ক্যাচ ধরেন।

Comments

comments

Leave A Reply

Your email address will not be published.