এবার ফেসবুকে নতুন যে পরিবর্তন নিয়ে এলো মার্ক জাকারবার্গ।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ফেসবুকে যে এ বছরই বড় পরিবর্তন আসবে—এমন আভাস আগেই দিয়েছিলেন এর সহপ্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। এ বছর তার চ্যালেঞ্জ ফেসবুককে ‘ঠিক’ করার। শুরুতেই ব্র্যান্ড, ব্যবসা ও মিডিয়ার পেজগুলোর জন্য বড় ধাক্কা দিলেন। এ ধরনের পেজগুলো এখন গুরুত্বহীন হয়ে যাবে। গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে বন্ধুদের দেওয়া স্ট্যাটাস, মন্তব্য, ভিডিও। হঠাৎ ফেসবুকের কী হলো?

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, ফেসবুকে শিগগিরই বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে। ফেসবুকের নিউজফিডে এখন যে ধরনের খবর, ভিডিও, ছবি বা তারকার যে পোস্টের প্রাধান্য দেখতে পান, তা আর দেখা যাবে না। এর পরিবর্তে আপনার বন্ধু, পরিবার বা যাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ বেশি হয়, তাদের পোস্টকে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হবে। এর কারণ ব্যাখ্যা করেছেন ফেসবুকের মূল পাতার ব্যবস্থাপক জন হেজেমান।

হেজেমান জানান, এটা বড় একটি পরিবর্তন। তবে আমরা জানি, ‘এতে ফেসবুকে মানুষের সময় কাটানোর পরিমাণ কমে যাবে কিন্তু যেটুকু সময় এখানে তারা থাকবে সেটা আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে। শেষ পর্যন্ত ব্যবসার জন্য ভালো হবে। উদাহরণ হিসেবে এক দম্পতির পোস্ট করা নিজেদের ভিডিও ক্লিপের কথা বলা যায়। কোনো বিখ্যাত তারকা বা রেস্তোরার টুকরো কিছু তুলে ধরার চেয়ে ওই দম্পতির ভিডিও বেশি আর্কষণীয়।’

হেজেমানের দাবি, পরোক্ষভাবে কনটেন্ট গ্রহণের চেয়ে মানুষের মধ্যে যোগাযোগের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাই এখন পর্যন্ত যতো হালনাগাদ আনা হচ্ছে, এটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

এ প্রসঙ্গে ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ বলেন, মানুষকে একসঙ্গে আনতে পারা ও কমিউনিটিগুলোকে শক্তিশালী করা বাস্তবে বেশি অগ্রাধিকার পাবে। শিগগিরই বিশ্বজুড়ে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা এ পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

জাকারবার্গ তাঁর ফেসবুক পেজে লিখেছেন, নিউজফিডে পরিবর্তন এলে আপনারা ব্যবসা, ব্র্যান্ড ও মিডিয়ার পোস্ট কম দেখতে পাবেন। ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টের মাধ্যমে এ পরিবর্তন আনার কথা জানিয়েছেন ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ।

দীর্ঘদিন ধরে ফেসবুকের মূল পাতা সম্পর্কে বিভিন্ন অভিযোগ আসছিল। মূল পাতায় ব্যক্তিগত পোস্টের চেয়ে বিভিন্ন পেজের পোস্টকেই বেশি দেখা যায়, এমনটা জানিয়ে আসছিলেন ব্যবহারকারীরা। আর তাই ফেসবুকের ব্যবহারকে সুখকর করে তুলতে নতুন এ পরিবর্তন আনার কথা জানিয়েছেন মার্ক জাকারবার্গ।

ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতাকে সাবলীল করে তোলা ফেসবুকের দায়িত্ব বলে জানান তিনি। জাকারবার্গ বলেন, ‘আমরা যখন এটা চালু করব, আপনারা নিউজ ফিডে বাণিজ্যিক পণ্য ও সংবাদমাধ্যমের পোস্ট অনেক কম দেখতে পাবেন। এ ছাড়া যেসব সর্বজনীন বিষয় আপনারা পাবেন, তা-ও হবে একই মানের। তা যেন মানুষের মধ্যে অর্থবহ অন্তরঙ্গতা সৃষ্টিতে উৎসাহ জোগায়।’

ফেসবুকের মূল পাতার ব্যবস্থাপক জন হেজেমান জানান, ফেসবুক মূল পাতাকে ব্যবহারকারীর কাছে আরও ভালোভাবে উপস্থাপন করার ব্যাপারে অনেক দিন ধরেই গবেষণা করছে। নতুন এ পরিবর্তনের ফলে ব্যবহারকারীদের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্কের উন্নতি হবে। আর এটাই ফেসবুকের মূল লক্ষ্য বলে উল্লেখ করেন হেজেমান।

ফেসবুকের মূল পাতার অ্যালগরিদমে বড় পরিবর্তন এবারই প্রথম নয়। ২০১৬ সালে মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের পর ভুয়া খবর প্রচারের অভিযোগ ওঠায় ফেসবুক বেশ কিছু পরিবর্তন নিয়ে এসেছে এর মূল পাতায়। এ ছাড়া নেতিবাচক ও মানুষের পছন্দ নয়—এমন পোস্ট দ্রুত অপসারণেও কাজ করছে ফেসবুক। তবে নতুন এ পরিবর্তনের ফলে ফেসবুকের বেশ খরচা হতে চলেছে বলে নিজেই স্বীকার করেছেন মার্ক জাকারবার্গ।