জেনে নিন জয় হেমন্ত শ্রফের টাইগার শ্রফ হয়ে ওঠার গল্প

বলিউড বিনোদন

টাইগার এখন বলিউডে বেশ আলোচিত! ছবি : সংগৃহীত

জন্মের পর সবাই নাম রেখেছিলেন জয় হেমন্ত শ্রফ। কিন্তু আস্তে আস্তে সেই নামটাই বদলে হয়ে গেল টাইগার। এই নামেই বলিউডে পরিচিত টাইগার শ্রফ। অভিনেতা জ্যাকি শ্রফ আর তাঁর স্ত্রী আয়েশার ছেলে টাইগার এখন ‘বাগি’ সিনেমার দৌলতে বলিউডে তুমুল আলোচনায়। নিজের জীবনের অনেক কথাই জানিয়েছেন ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে, সেখানে এসেছে তাঁর এহেন নামকরণের কারণ!

টাইগার বলেন, “আমি ছোটবেলায় খুব দুষ্টু আর ছটফটে ছিলাম। মায়ের কোলে বসেই হাত-পা বাড়িয়ে অন্যকে কামড়ে-আঁচড়ে দিতাম। আর সেই থেকেই পরিচিত মহলে আমার নাম হয়ে গেল ‘টাইগার’।”

ছোটবেলার সেই দুরন্ত টাইগার কিন্তু এখন মোটেই নন তিনি। যথেষ্ট শান্তশিষ্ট, ভদ্র। বললেন, ‘এই পরিবর্তনটা আমার মধ্যে এসেছে মূলত ক্লাস সেভেন্থ স্ট্যান্ডার্ড থেকে। যত বড় হয়েছি, বাবাকে তত রাগী আর রাশভারী মনে হয়েছে। একটু বড় হতেই আমার যাবতীয় বায়না, যা কিছু আবদার, সবই মায়ের কাছেই করতাম। বাবা সামনে এলেই চুপ হয়ে যেতাম। তখন আমার বাড়িতে আমার মজা ও আনন্দ করার সঙ্গী বলতে ছিল আমার বোন কৃষ্ণা।’

অভিনয় নিয়ে টাইগার বললেন, ‘শিশু বা কিশোর বয়সে আমি অভিনয়ে আসার কথা কখনোই ভাবিনি। তখন আমার মধ্যে খেলাধুলার বিষয়টিই বেশি ঘুরপাক খেত। ফুটবল ছিল আমার সবচেয়ে পছন্দের খেলা। এ ছাড়া মার্শাল আর্টস, জিমন্যাস্টিক আর নাচে আগ্রহ ছিল বরাবরই। মার্শাল আর্টে ব্রুস লি আর নাচে মাইকেল জ্যাকসন আমার প্রিয় ছিল। সে সময় ঘরে দরজা বন্ধ করে মাইকেল জ্যাকসনের নাচ প্র্যাকটিস করতাম। আসলে ওই বয়সে যেটা হয়, একসঙ্গে অনেক কিছু হওয়ার স্বপ্ন এসে মাথায় বাসা বাঁধে আর কী।’

সেলিব্রেটি পরিবারের সন্তান হওয়ার জন্য অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছেন আগে থেকেই, ‘জ্যাকি শ্রফের ছেলে হওয়ায় আমাকে খুব কম বয়স থেকেই শুনতে হয়েছিল, কবে থেকে আমি ফিল্মে নামছি। যত উঁচু ক্লাসে উঠেছি, যত বড় হয়েছি, ততই শুনতে হয়েছে কবে আমি ফিল্মে নামব। বিভিন্ন মহলে শুনতে হয়েছে এই প্রশ্ন। স্কুলের গণ্ডি পার হওয়ার আগে থেকেই আমার কাছে অভিনয়ের প্রস্তাবগুলো আসতে শুরু করে।’

টাইগার আরো বলেন, ‘শাহরুখ খানের ফৌজি সিরিয়ালের রিমেকের জন্য আমাকে বলা হয়েছিল। তা ছাড়া সুভাষ ঘাই স্যার যেহেতু বাবাকে লঞ্চ করিয়েছিলেন, তাই ওনার ছবিতে আমার লঞ্চ হওয়া নিয়েও কথা উঠেছিল। কিন্তু যেকোনো কারণবশত সেগুলোতে আমি কাজ করতে পারিনি। উল্টো সে সময় আমি জিমনেশিয়াম, মার্শাল আর্ট, ড্যান্সের দিকেই সময় দিয়েছি।’

২০১৪ সালে ‘হিরোপান্তি’ ছবিতে সাইন করেন টাইগার। জানালেন, ওই ছবিতে বাবলু ক্যারেক্টারের মধ্যে তিনি এত দিন ধরে শেখা সব রকম শিক্ষার যোগসূত্র খুঁজে পেয়েছিলেন। টাইগার অকপটে বললেন, বলিউড তারকা হৃতিক রোশন তাঁর কাছে আইডল। হৃতিক রোশনকে রোল মডেল করে বলিউডে উল্লেখযোগ্য কিছু করতে চান তিনি। টাইগারের মতে, হৃতিকের সুপারম্যান ইমেজ, ড্যান্স স্কিল, ফাইটিং ক্যালিবার সবকিছুই দুর্দান্ত।

‘হিরোপান্তি’ ছবির পর টাইগারের দ্বিতীয় ছবি ‘বাগি’। ছবির নায়িকা শ্রদ্ধা কাপুর ছিলেন তাঁর ক্লাসমেট। ‘পারিবারিক দিক থেকে স্কুলজীবন থেকে ওকে চিনি। এখন ওর সঙ্গে রোমান্স করেছি শুটিংয়ে। শ্রদ্ধার অভিনয় বরাবরই আমার পছন্দ।’ তবে শ্রদ্ধার সঙ্গে তাঁকে নিয়ে অল্পবিস্তর গুঞ্জন উঠলেও সেই গুঞ্জনকে কার্যত ফুঁ দিয়ে উড়িয়ে টাইগার জানিয়ে দিলেন, তাঁর গার্লফ্রেন্ড দিশা পাটানি। সুতরাং গুঞ্জন উঠলেও এর কোনো ভিত্তি নেই।