টানা ৬ষ্ঠ হার সিলেটের, শেষ চারের সম্ভাবনা উজ্জল রংপুরের

ক্রিকেট খেলাধুলা

বিপিএলের আজকের দিনের প্রথম ম্যাচে বাঁচা মরার লড়াইয়ে সিলেট সিক্সার্সকে টানা ৬ষ্ঠ হারের তেতো স্বাদ দিয়ে বিপিএলের শেষ চারে থাকার সম্ভাবনা উজ্জল করল মাশরাফির রংপুর রাইডার্স।  সিলেটের দেওয়া ১৭৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে  ২ বল হাতে রেখেই ৪ উইকেটের জয় পায় রংপুর রাইডার্স।

সিলেটের দেওয়া ১৭৪ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ের শুরুটা ভালো হয়নি রংপুরের।  ম্যাচের প্রথম ওভারেই ৫ রান করে দলীয় ৭ রানের মাথায় বিদায় দেন গেইল।  এরপর অবশ্য আর পেছনে তাকাতে হয়নি রংপুরকে।

ওপেনিংয়ে নামা জিয়াউর রহমান ও ম্যাককালামের তান্ডবে মাত্র ৬.৪ ওভারেই ৬৬ রান স্কোর বোর্ডে জমা করে রংপুর।   তবে ১৮ বলে ৩৬ রান করে জিয়াউর রহমান আউট হওয়ার পর ম্যাককালের সাথে জুটি গড়েন মিঠুন।   এই জুটিতে আসে আরো ৩৪ রান।   ১৭ বলে ১৮ রান করে মিঠুন বিদায় নিলে ভাঙ্গে এই জুটি।  এরপর ম্যাককালামের সাথে জুটি বাধবেন বোপারা।  তবে এই চুটি বেশিখন স্থায়ী হয়নি।  দলীয় ১১৭ রানের মাথায় ম্যাককালাম বিদায় নিলে ভাঙ্গে এই প্রতিরোধ।  আউট হওয়ার আগে ৩৮ বলে ৪৩ রান করেন ম্যাককালাম।  এসময় সিলেটি বোলাররা রংপুরকে চেপে ধরে তুলে নেন আরো দুই উইকেট।  ম্যাককালামের বিদায়ের পর ব্যাট করতে নেমে কোন রান না করেই আবারো সাজঘরে ফিরেন সামিউল্লাহ সেনোয়ারি।  আর দলীয় ১৪৫ রানের মাথায় ফিরে যান ৩৩ রান করা বোপারা।

১৭.২ ওভারে রংপুরের সংগ্রহ ১৪৫ রান।  হারিয়েছে ৬ উইকেট।  এবার ম্যাচ দুলতে থাকে দুদিকেই।  তবে দুদোল্যমান সেই সময়ে দলের হাল ধরেন মাশরাফি ও নাহিদুল ইসলাম।  দুজনে মিলে অবিচ্ছিন থেকেই ম্যাচটি শেষ করেন ২ বল হাতে রেখেই।  এসময় মাশরাফি ১০ বলে ২ ছক্কায় ১৭ ও নাহিদুল ৭ বলে ২ বাউন্ডারিতে ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন।

এই জয়ের ফলে শেষ চারের আশা যেন রংপুরের জন্য উজ্জল হল তেমনি টানা ছয় হারে শেষ চারের সম্ভাবনা আরো কমে গেল সিলেটের।