টি-টুয়েন্টি বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথ

ক্রিকেট খেলাধুলা প্রধান খবর

ধরুন ব্যক্তিজীবনে আপনার একজন চরম প্রতিদ্বন্দ্বী আছেন। মুখোমুখি দ্বৈরথে সবসময় একে অন্যকে হারাতে চান। আর বাকিদের হারিয়ে সেরা হওয়ার চেষ্টা তো আছেই। যদি এমন হয়, আপনি অন্য একজনকে হারিয়ে দিচ্ছেন, কিন্তু এতে আপনার সেই প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে যাচ্ছে সেরা! এমন ঘটনাই ঘটতে যাচ্ছে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে। ভারত যদি নিউজিল্যান্ডকে চলতি টি-টুয়েন্টি সিরিজে হারিয়ে দেয় তাহলে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে চলে যাবে পাকিস্তান! চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে একনম্বর দলের জায়গাটা কি পাকিস্তান উপহার পাবে ভারতের কাছে?

পাকিস্তান-ভারত ক্রিকেট ম্যাচ সবসময়ই আলাদা উত্তেজনা ছড়িয়ে এসেছে। নানা কারণেই ২০১২/১৩ মৌসুমের পর দলদুটির দ্বিপক্ষীয় সিরিজ হয়নি। সর্বশেষ তারা মুখোমুখি খেলেছিল চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে। দাপটের সাথেই ভারতকে ১৮০ রানে হারিয়ে ট্রফি জিতেছিল পাকিস্তান।

এতো গেল ওয়ানডের হিসাব। টি-টুয়েন্টিতে দুই দলের সর্বশেষ মোলাকাত ২০১৬ সালে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে। পাকিস্তান ৬ উইকেটে হেরেছিল ম্যাচটি। এরপর অনেক জলই গড়িয়েছে। কিছুদিন আগেই শ্রীলঙ্কাকে টি-টুয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করে র‍্যাঙ্কিংয়ে দ্বিতীয় দল পাকিস্তান। ১২৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষ দল নিউজিল্যান্ডের চেয়ে মাত্র ১ পয়েন্ট পিছিয়ে আছে তারা। কিউইদের ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ হারালে র‍্যাঙ্কিংয়ে ৫ নম্বর দল ভারত ১২২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে চলে আসবে দ্বিতীয় স্থানে। আবার ভারত ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে নিউজিল্যান্ডের পয়েন্ট হবে ১২১। দুটি ঘটনাতেই আখেরে লাভ পাকিস্তানের। যেকোন একটি ঘটলেই তারা হয়ে যাবে টি-টুয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে একনম্বর দল।

তবে দলের খেলোয়াড়দের সাফল্যে আনন্দিত হতে পারে ভারত। ডানহাতি পেসার জাসপ্রিত বুমরাহ টি-টুয়েন্টি বোলার র‍্যাঙ্কিংয়ে একনাম্বার জায়গাটি ফিরে পেয়েছেন। সেটা সেই পাকিস্তানেরই বাঁহাতি স্পিনার ইমাদ ওয়াসিমের কাছ থেকে। ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ ব্যাটসম্যান কোহলি টি-টুয়েন্টির শীর্ষ হয়েই ব্যাট করতে নামবেন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে।

র‍্যাঙ্কিংয়ে কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন (৪) নিজ দলের ব্যাটসম্যানদের মাঝে শীর্ষে আছেন। ১২ নম্বরে থাকা বাঁহাতি স্পিনার মিচেল স্যান্টনার বোলারদের মধ্যে সেরা।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই টি-টুয়েন্টি ম্যাচে ভাল ব্যাটিং করা সৌম্য সরকার ব্যাটসম্যানদের তালিকায় ১৯ ধাপ উঠে অবস্থান করছেন ২৮ নম্বর স্থানে। অন্যদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে এই ফরম্যাটে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়ে ডেভিড মিলার ১৬ ধাপ এগিয়ে আছেন ২২ নম্বরে। বোলারদের মাঝে ১৯ ধাপ এগিয়ে প্রোটিয়া স্পিনার অ্যারন ফাঙ্গিসো আছেন ৪৭ নম্বরে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভাল পারফরম করে দুই পাকিস্তাবি পেসার শাদাব খান ও মোহাম্মদ আমির বোলারদের তালিকায় আছেন যথাক্রমে ৪০ ও ৪৯ নম্বরে। দুজনেরই উন্নতি হয়েছে ২১ ধাপ।