ত্বক উজ্জ্বল রাখতে যা খাবেন, যা বর্জন করবেন

লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য

সঠিক খাবার নির্দেশনা আপনার ত্বক সুস্থ রাখতে, বিভিন্ন অঙ্গের কার্যকারিতা উন্নত করতে এবং শরীরকে সুস্থ রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যখন আপনি অস্বাস্থ্যকর খাবার খান, আপনার ত্বক হয়ে যায় নিষ্প্রাণ।

অন্যদিকে, যখন আপনি স্বাস্থ্যকর খাবার খান, আপনার ত্বকের গঠন উন্নত হয়, ত্বক হয়ে ওঠে কোমল ও উজ্জ্বল।

খাবার গ্রহণের ভিন্নতা-ই সৃষ্টি করে ত্বকের পার্থক্য। অবশ্য, আপনার জীবনধারা ও জিনগত বৈশিষ্ট্য প্রভাব ফেলে ত্বকে। সুতরাং, কোন খাবারগুলো ত্বককে উজ্জ্বল ও স্বাস্থ্যকর করে আর কোন খাবারগুলো ত্বককে জীবাণুযুক্ত ও নিষ্প্রাণ করে তা জানতে হবে।

নিচে দেওয়া হলো কোন খাবারগুলো গ্রহণ করতে হবে আর কোনগুলো বর্জন করতে হবে:

১। হলুদ
হলুদ এমন একটি উপকারী মশলা যা আপনার ত্বককে একদিকে উজ্জ্বল করবে অন্যদিকে বিভিন্ন ধরনের রোগ থেকে দেবে সুরক্ষা। হলুদের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট কার্যকরভাবে শরীরের প্রদাহের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে। এতে ত্বকের দাগ দূর করে এবং ত্বককে উজ্জ্বল করে। তাই উপাদানটি যোগ করুন খাদ্য তালিকায় এবং সরাসরি প্রয়োগ করুন ত্বকে। দুই প্রক্রিয়াই ত্বকের জন্য উত্তম।

পেঁপে
এই ফলটি এনজাইমে সমৃদ্ধ যা আপনার জন্য স্বাস্থ্যকর। এটি ত্বকের প্রদাহ কমায় এবং ত্বকে প্রয়োগ করলে চর্মরোগ দূর হয়। ফলটিতে থাকা এনজাইম ত্বকের ছিদ্র পূরণ করে এবং ত্বক পরিষ্কার করে।

৩। স্যামন
স্যামন মাছে রয়েছে অ্যান্টি ইনফ্লেমাটোরি উপাদান। এ ছাড়া এতে রয়েছে উচ্চ মাত্রার ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড। এতে ডিমেথাইলামিনোথানোল (ডিএমইএ) রয়েছে যা কোষের ঝিল্লিগুলোর অখণ্ডতা বজায় রেখে ত্বকের স্বাস্থ্য রক্ষা করে। এর স্বাস্থ্যকর চর্বি শরীরে বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না।

৪।আভোকাডো
ত্বকের জন্য প্রসাধন পণ্যের পেছনে টাকা খরচ না করে সোজা চলে যান সুপারমার্কেটে। সেখান থেকে কিনুন আভোকাডো। এই ফলে রয়েছে প্রচুর স্বাস্থ্যকর চর্বি যা আপনার ত্বকের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনবে এবং ত্বককে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করবে।

৫। ব্লুবেরি
ব্লুবেরি এমন একটি সুপারফুড যার মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এই উপাদান ত্বকের কোষকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে। এটি ক্ষতিকর মৌলের বিরুদ্ধে লড়াই করে। এগুলো কোলাজেন ফাইবারের  শক্তি বৃদ্ধি করে যা আপনার ত্বকে ফিরিয়ে আনে  স্বাস্থ্যকর চেহারা।

কী বর্জন করা উচিত?

১। অ্যালকোহল
অ্যালকোহল স্বাস্থ্যের জন্য খারাপ- এটি সবাই জানে।  এটি ত্বকে পানিশূন্যতা সৃষ্টি করে। এতে ত্বক হয়ে ওঠে শুষ্ক ও রুক্ষ। এটি ত্বকে নিয়ে আসে অকাল বার্ধক্য।

২। রাস্তার খাবার
রাস্তার পাশে আপনার বাসার কাছাকাছি হয়তো বিক্রি করা হয় কড়া ভাজা খাবার। আপনি হয়তো এগুলো ভালোবাসেনও। কিন্তু এগুলো আপনার স্বাস্থ্য ও ত্বকের জন্য খুব ক্ষতিকর। এসব খাবার রক্ত ​​সঞ্চালনে ধীরগতি আনে, ত্বকের ছিদ্র পূরণে বাধা দেয় এবং ত্বকের স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে।

৩। কফি
এটি ভালো যে আপনি কফি ভালোবাসেন কিন্তু দুই কাপের বেশি কফি পান করলে তা আপনার ত্বককে নিষ্প্রাণ করে তুলবে। কফির মূল উপাদান ক্যাফেইন ত্বকের ক্ষতি করে। এটি ত্বককে রোগা করে এবং ত্বকে আনে অকাল বার্ধক্য।

৪। মিষ্টি
মিষ্টিও আপনার স্বাস্থ্য ও ত্বকের জন্য অনুকূলে নয়। মিষ্টি বেশি খেলে তা ত্বকে ব্রণ সৃষ্টি করতে পারে। এটি আপনার ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা হ্রাস করে।

৫। চিপস
চিপস অত্যন্ত সুস্বাদু একটি খাবার তবে ত্বকের জন্য তা ক্ষতিকর। বেশিরভাগ চিপসে লবণের পরিমাণ বেশি থাকে যা ত্বকের প্রদাহের কারণ হতে পারে। তাছাড়া অন্যান্য কারণেও এটি মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়।