‘দীপিকার মাথা কাটলেই ৫ কোটি’

বিনোদন

‘দীপিকা পাড়ুকোনের শিরশ্ছেদ করতে পারলে দেওয়া হবে ৫ কোটি।’ রাজপুত কর্ণী সেনার পর এবার রিলের ‘পদ্মাবতী’-কে হুমকি দিলো উত্তর প্রদেশের ক্ষত্রিয় সমাজ বলে একটি সংগঠন। সংগঠনের সদস্য ঠাকুর অভিষেক সোম নামে এক ব্যক্তি হুমকি দিয়েছেন, পদ্মাবতীর পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানশালী এবং অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের শিরশ্ছেদ কেউ করতে পারলে তাকে ৫ কোটি পুরস্কার দেওয়া হবে।

ওই সংগঠনের আরও দাবি, সঞ্জয় লীলা বানশালীর পদ্মাবতীতে ‘স্বল্প পোশাক’ পরে রাজপুত রানির চরিত্রে অভিনয় করেছেন দীপিকা। যা রানি পদ্মাবতীর ঐতিহ্য নষ্ট করে দিচ্ছে। তাই শিরশ্ছেদ থেকে বাঁচতে ভারত ছেড়ে চলে যান দীপিকা। না হলে ফল ভুগতে হবে বলে দেওয়া হয়েছে হুমকি। পাশপাশি পদ্মাবতী যদি মুক্তি পায়, তাহলে তার ফল ভোগার জন্য বানশালীও যেন তৈরি থাকেন বলেও সুর চড়িয়েছেন ওই ব্যক্তি।

সমাজবাদী পার্টি সদস্য অভিষেক সোম-এর অভিযোগ, কোনও রাজপুত নারী ওইভাবে সাধারণ মানুষের সামনে নাচতেন না। সেই কাজ করে রাজপুতদের আত্মসম্মানেও আঘাত করেছেন দীপিকা। তাদের কথায়, রাজপুতদের ইতিহাস সম্পর্কে কোনও ধারণা নেই বানশালীর। পাশাপাশি রাজপুতদের ইতিহাস যেভাবে ওই সিনেমায় বিকৃত করা হয়েছে, তার ফল বানশালীকে ভুগতে হবে বলেও চড়ানো হয়েছে সুর।

এদিকে, পদ্মাবতী ইস্যু নিয়ে এবার বাড়ানো হলো দীপিকার নিরাপত্তা। দীপিকা পাড়ুকোনের মুম্বাইয়ের বাড়ি এবং তার অফিস মুড়ে দেওয়া হয়েছে নিরাপত্তার ঘেরাটোপে। মুম্বাইয়ের জয়েন্ট পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন, দীপিকা পাড়ুকোনের নাক কেটে নেওয়া হবে বলে রাজপুত কর্ণী সেনার ওই হুমকির পরই অভিনেত্রীর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ভারতের জিনিউজ পত্রিকার খবরে বলা হয়, পদ্মাবতীর মুক্তি নিয়ে যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির কোনও অবনতি না হয়, তার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।