পাকিস্তানকে টি-টুয়েন্টির শীর্ষস্থান উপহার দিল ভারত!

ক্রিকেট খেলাধুলা প্রধান খবর

প্রিয় শত্রুর কাছ থেকে মধুর উপহার পেতে কার না ভালো লাগে! আর শত্রু যদি নিরুপায় হয়ে কাজটি করে আনন্দটা তাতে আরো বেড়ে যায়। এমনটাই ঘটেছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে। না, কোন ম্যাচে মুখোমুখি হয়নি তারা। কেউ কাউকে হারায়ওনি। ভারত শুধুমাত্র টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম জয়টা তুলে নিয়েছে বুধবার। এতে করেই শ্রীলঙ্কা সিরিজের পর অখণ্ড অবসরে থাকা পাকিস্তান প্রথমবারের মত উঠে গেছে টি-টুয়েন্টি বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ের ১ নম্বরে।

ক’দিন আগে শ্রীলঙ্কাকে টি-টুয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করেছে পাকিস্তান। রেটিং পয়েন্ট ১২৪ হলেও র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ দল নিউজিল্যান্ডের (১২৫) ঠিক পরের জায়গাটিতেই থাকতে হয় তাদের। এদিকে কিউইরা ভারতের বিপক্ষে মুখোমুখি হয়েছে তিন ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজে। সিরিজটি শুরু হওয়ার আগে মজার সমীকরণের মুখোমুখি হয় ভারত, পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ড। ভারত যদি ৩-০ ব্যবধানে সিরিজটি জেতে তাহলে তারা ১২২ পয়েন্ট নিয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে দুই নম্বরে চলে আসবে। কিন্তু শীর্ষে চলে যাবে চিরশত্রু পাকিস্তান। আবার ভারত ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে নিউজিল্যান্ড চলে আসবে ২ নম্বরে। শীর্ষে সেই পাকিস্তানই।

তার আগেই কাজটা হয়ে গেছে সমীকরণ মিলে যাওয়ায়। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি ওই ম্যাচের ফল হওয়ার পর জানিয়ে দিয়েছে টুইট করে, পাকিস্তানকে অভিনন্দন জানিয়ে যে প্রথমবারের মতো তারাই ২০ ওভারের এই ফরম্যাটে তারাই এক নম্বর। এর আগে গত বছর মিসবাহ উল হকের টেস্ট দল প্রথমবারের মতো বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ের ১ নম্বর হয়েছিল। তাদের হাতে উঠেছিল রাজদণ্ড।

এদিকে বুধবারের আগ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ছয়টি টি-টুয়েন্টি ম্যাচের একটিতেও জেতেনি ভারত। আবার এটি পেসার আশিষ নেহরার শেষ ম্যাচ। দেশের মাটিতে এমন ম্যাচে জয়ের সুযোগ তো হাতছাড়া করাও যায় না। শেষপর্যন্ত বৃহস্পতিবার ভারত ৫৩ রানে হারাল নিউজিল্যান্ডকে। নেহরাকে তারা উপহার দিল ১৮ বছরের ক্যারিয়ারের শেষটা স্মরণীয় করে রাখার উপলক্ষ্য। আর পাকিস্তান পেল টি-টুয়েন্টিতে সেরা দলের মুকুট। রেটিং পয়েন্ট ১২৪-ই আছে তাদের। নিউজিল্যান্ডেরটা কমে হয়েছে ১২১। আর পঞ্চম স্থানে থাকা ভারতের রেটিং বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১৮ তে। প্রথম ম্যাচ জিতে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেলেও সর্বোচ্চ দ্বিতীয় স্থানেই পৌঁছতে পারবে তারা। থাকতে হবে পাকিস্তানের পেছনেই।