প্রযুক্তি দ্রুততার সঙ্গে পরিবর্তিত হচ্ছে: পলক

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, অ্যামাজন, আলিবাবা, ফ্লিপকার্ট, পেটিএম-এর মতো প্রতিষ্ঠান একদিন বাংলাদেশ থেকেই জন্ম নেবে। সেই ধরনের অবকাঠামো তৈরি হচ্ছে। ২০২১ সালের মধ্যে সেই অবকাঠামো নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে। একই সময়ের মধ্যে ৩ লাখ শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজও শেষ হবে। ফলে বড় বড় প্রতিষ্ঠান তৈরি করতে বাংলাদেশও প্রস্তুত হয়ে
প্রতিমন্ত্রী রবিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে টেলিকম রিপোর্টার্স নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ (টিআরএনবি)-এর সদস্যদের সঙ্গে ‘টেকটক’ শীর্ষক এক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।
মত বিনিময় সভায় পলক বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের এ যুগে প্রযুক্তি খুবই দ্রুততার সঙ্গে পরিবর্তিত হচ্ছে। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এবং প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা নির্দেশনায় বাংলাদেশকে চতুর্থ শিল্প-বিপ্লবে শামিল করতে চাই। পাশাপাশি সরকারি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে এবং প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ লাগবে নানামুখী প্রকল্প বাস্তবায়ন করছি। এসব প্রকল্প সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে এবং প্রকল্পের সুফল প্রচার করতে টিআরএনবি আরও জোরালো ভূমিকা রাখবে।

প্রতিমন্ত্রী এ সময় টেলিকম খাতকে রাস্তা (রোড) ও আইসিটি খাতকে যানবাহনের সঙ্গে তুলনা করে বলেন, আইসিটি ও টেলিকম সেক্টর আলাদা দুটো সেক্টর হিসেবে বিবেচনা করা সমীচীন নয় বলেই প্রধানমন্ত্রী এ দুটো বিভাগকে একটি মন্ত্রণালয়ের আওতায় নিয়ে এসেছেন। তাই টিআরএনবির সঙ্গে আইসিটি বিভাগের আন্তরিক সম্পর্ক রয়েছে। এ ধরনের আলোচনার মাধ্যমে সে সম্পর্ক আরও নতুন মাত্রা পাবে।

মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী সফটওয়্যার রপ্তানি, হার্ডওয়্যার খাতে শুল্ক হ্রাস, সবার জন্য ইন্টারনেট সংযোগ, শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব, ইনোভেশন ডিজাইন অ্যান্ড এন্ট্রাপ্রেনিওরশিপ, ই-গভর্নেন্স, তথ্যপ্রযুক্তি খাতে কর্মসংস্থান, হাইটেক পার্ক, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, আইওটি, মিশন ১ বিলিয়ন ডলার, টেন প্লাস টেন প্লাস টেন স্ট্র্যাটেজি, ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনসহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন। অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সচিব সুবীর কিশোর চৌধুরী, টিআরএনবির সভাপতি রাশেদ মেহেদী, সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বক্তব্য রাখেন।