প্রেমিকার জন্যে মেসিদের সমর্থক রোনালদো

খেলাধুলা ফুটবল

বর্তমান সময়ে ফুটবল বিশ্বে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর নাম আর্জেনটাইন ক্ষুদে জাদুকর লিওনেল মেসি ও পর্তুগিজ যুবরাজ ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এই দুইজনকে নিয়ে সবসময়ই লেগে থাকে তর্ক-বিতর্ক। তবে সিআর সেভেন জানালেন ভিন্ন কথা তিনি নাকি মেসিদের ভক্ত।

রোনালদোর পর্তুগাল ২০১৬ সালের ইউরোপ চ্যাম্পিয়ন। আসন্ন রাশিয়া বিশ্বকাপেও ডার্ক হর্স তার দল। ফিফা বিশ্বকাপের ২১তম আসরের বাকি আর মাত্র ৫৩ দিন। ইতিমধ্যে সমর্থকরা তার নিজ নিজ পছন্দের দলের খোঁজখবর রাখতে শুরু করে দিয়েছেন। খেলোয়াড়দেরও কিন্তু নিজ দলের বাইরে অন্য দলের সমর্থন থাকে। এছাড়া যেসব দেশ এবার রাশিয়ায় যাওয়ার সুযোগ পায়নি তারাও তো কোন না কোন দলকে সমর্থন করবেন। তবে রিয়াল মাদ্রিদ তারকা কোন দলের সমর্থন করেন।

এ বিষয়ে অবাক করার মতো তথ্যই দিয়েছেন সিআর সেভেন। তিনি আর্জেন্টিনার সমর্থক বলে জানিয়েছেন। সবার ঘোর কাটাতে এও বলেছেন যে অনেকে ভাবেন আমি আর্জেন্টিনাকে পছন্দ করি না। কিন্তু তাদের ধারণা ভুল।

তিনি ভক্তদের পর্তুগালকে সমর্থন করতে বলবেন এমনই হওয়ার কথা। কিন্তু ইনস্টাগ্রামে লাইভে এসে পর্তুগিজ যুবরাজ জানালেন, ‘তিনি আর্জেন্টিনা দলকে পছন্দ করেন।’ রোনালদো এমন মন্তব্য করার আগে তার প্রতিদ্বন্দ্বী মেসি আর্জেন্টিনায় খেলেন এটা ভুলে গেছেন তা কিন্তু নয়। মেসির দলকে পছন্দ করার কারণও জানিয়েছেন রিয়াল তারকা।

তিনি বলেন, ‘অনেকে হয়তো জানেন না আমার সঙ্গী জর্জিনা রদ্রিগেজ আর্জেন্টিনার। সবাই ভাবেন আমি আর্জেন্টিনাকে অপছন্দ করি। কিন্তু সত্যি হলো আমি তাদের দলকে অনেক পছন্দ করি।’ রোনালদোর কথাতেই পরিষ্কার তিনি সন্তানের মা জর্জিনার জন্য আর্জেন্টিনাকে পছন্দ করেন।

স্পেনের নাগরিক জর্জিনা পুরোপুরি স্প্যানিশ নন বরং অর্ধেক আর্জেন্টাইন। স্পেনের জাকা শহরে বেড়ে ওঠা জর্জিনা বলেন, ‘আমার বাবা ছিলেন আর্জেন্টিনার। আর আমার মা স্পেনের মুর্শিয়ার। তারা একসঙ্গে আমার বোন ইভানাকে নিয়ে আর্জেন্টিনায়ও গিয়েছিল। সে আমার বাবার পরিবারকে চেনেও।’

কিন্তু শেষ পর্যন্ত রোনালদোর প্রেমিকার আর্জেন্টিনায় থাকা হয়নি বলে জানান। তিনি বলেন, ‘আমার জন্মের পর বাবা আর্জেন্টিনায় থাকার জন্য আমার মাকে বোঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু বাবা আমার মাকে রাজি করাতে পারেননি। আমার যখন এক বছর বয়স তখন তারা আবার স্পেনের মুর্শিয়ায় চলে আসে এবং জাকাতে বসবাস শুরু করেন।