ফেসবুক আত্মহত্যা প্রতিরোধে কাজ করবে

প্রধান খবর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ফেসবুক তাদের প্রযুক্তি কার্যক্রম নিয়ে মানুষের কাছা কাছি হতে অনেক ফিচার যুক্ত করেছে  এবং ভবিষৎতে মানুষের আরও কাছা কাছি হতে এবং বুঝতে তাদের পরিকল্পনা রয়েছে।

সোমবার কোম্পানিটি তারই একটি পদক্ষেপ জানিয়েছে, এখন সম্ভাব্য আত্মহত্যা জনিত পোস্ট, ভিডিও এবং ফেসবুক লাইভ স্ট্রীম সনাক্ত করতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করছে। এটির অধীনে ফেসবুকের পুরো একটি টিম কাজ করবে এবং তাদের এইআই টুলসের মাধ্যমে সম্ভাব্য  আত্মহননের পোস্টগুলি রিভিউ করবে।

একটি ব্লগ পোস্টে কোম্পানী জানায়, এ.আই এন্টি পোস্টে রিড করবে যে পোস্ট গুলি আত্মহত্যার বা স্ব-ক্ষতির উল্লেখ থাকতে পারে। পোস্ট অনুসন্ধান ছাড়াও, এটি পোস্টের নিচের মন্তব্য গুলোও স্ক্যান করবে। যদি এআই এন্টি পোস্ট সনাক্ত করে আত্মঘাতী চিন্তার পোস্ট বা অনাকাংখিত কিছু হতে যাচ্ছে সাথে সাথে ফেসবুক থেকে মন্তব্য হবে, “আপনি কি ঠিক আছেন?” এবং “আমি কি কোন সাহায্য করতে পারি?” সম্ভাব্য আত্মঘাতী চিন্তা একটি সংকেত হিসাবে।

ফেসবুক এআই সুইসাইড প্রটেকশন ফিচার

যদি দলটি একটি পোস্ট পর্যালোচনা করে নিশ্চিত হয় এবং অবিলম্বে হস্তক্ষেপের প্রয়োজন , তবে ফেসবুক সাহায্যকারী পাঠাতে বিভিন্ন সাহায্যকারী সংস্থার সাথে যোগাযোগ করবে যেমন ন্যাশনাল এটিং ডিসর্ডার অ্যাসোসিয়েশন, এবং ন্যাশনাল সোয়াসিড প্রিভেনশন লাইফাইনের লিঙ্কগুলির সাথে। তবে এই সেবাটি প্রথমে শুধু আমেরিকার মধ্যে চালু হবে।

২০১৭ মার্চ মাসে ফেসবুকে (এফবি, টেক 30) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে টেক্সট-কেবল পোস্টগুলিতে এআই ভিত্তিক আত্মহত্যা প্রতিরোধের প্রচেষ্টার একটি সীমিত পরীক্ষা শুরু করে।

ফেসবুকে এআইকে ব্যবহার করবে কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য আর কিছু সময় নিবে। তাদের ধারনা এটি ব্যবহারে ফেসবুক সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়তে পারে।
এই পদক্ষেপটি নেওয়া শুধু ঝুঁকিপূর্ণ বা হাতাশা গ্রস্থ ব্যবহারকারীদেরকে আরও মানসিক ভাবে সমার্থন করার প্রচেষ্টার একটি অংশ। ফেসবুক তাদের ফেসবুক লাইভ ফিচারের জন্য সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছে, যেখানে কিছু ব্যবহারকারী আত্মহত্যা সহ বিভিন্ন অনাকাংখিত ঘটনা সরাসরি লাইভ প্রচার করেছে।

এরি সর্বশেষ প্রচেষ্টাটি বিশ্বব্যাপী অপ্রত্যাশিত পোস্ট এবং ভিডিও পোস্টগুলিতে স্বংক্রিয় ফ্ল্যাগিং পদ্ধতি আনবে।

সূত্র: সিএনএন টেক