বিপদে সাকিবের হায়দরাবাদ!

ক্রিকেট খেলাধুলা

আগামী শনিবার মাঠে গড়াচ্ছে আইপিএলের জমজমাট আসর। বিশ্বের সব নামীদামি ক্রিকেটারদের সাথে রয়েছেন বাংলাদেশেরও দুই টাইগার- সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান। দু’জনেই এবার নতুন দলে খেলবেন। ইতোমধ্যে ভারতে চলে গেছেন তারা। একটু আগে ভাগে যাওয়ার অর্থ নিজ দলের ক্রিকেটারদের সাথে মানিয়ে নেয়া।

আগের দুই আসরে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলা মোস্তাফিজের নতুন দল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। শিরোপা ধরে রাখার যে লড়াই থাকবে দলটির, তাতে এই পেসার অন্যতম ভূমিকা রাখবেন বলে ইতোমধ্যে আশা পোষণ করেছে দলটি। বোলিংয়ে তার অন্যতম পার্টনার হবেন ভারতের জাতীয় দলের অন্যতম সদস্য বুমরাহ।

আর কলকাতা নাইটরাইডার্সে দীর্ঘ সময় খেলার পর এবার হায়দরাবাদে সাকিব। বিপদে তার দল হায়দরাবাদ! বিশেষ করে কেপটাউনে অস্ট্রেলিয়ান দলের যে বল টেম্পারিংয়ের ঘটনা, তার অন্যতম নায়ক ছিলেন নাকি অস্ট্রেলিয়ার সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। যিনি ছিলেন হায়দরাবাদের অধিনায়ক।

নিষেধাজ্ঞার বেড়াজালের কারণে কাকে অধিনায়ক করবে দলটি এ নিয়ে খানিকটা চিন্তাভাবনাও চলে। সেখানে সাকিবও ছিলেন বিবেচনায়। শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের তারকা ক্রিকেটার কেন উইলিয়ামসনের ওপরই দেয়া হয় ওই দায়িত্ব। তবে ওয়ার্নার না থাকায় সাকিবের ভূমিকা বেড়ে যাবে দলে। দলের কর্মকর্তারা বাংলাদেশ দলের টি-২০ অধিনায়ককেও অনেক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে রাখবেন। এ ছাড়া উপায়ও নেই।

তবে দলে এখনো যারা রয়েছেন তারা চেষ্টা করবেন ওয়ার্নারের দুর্বলতা পুষিয়ে দেয়ার। কিন্তু ওই অস্ট্রেলিয়ান ব্যাট হাতে যেমন অসাধারণ তেমনি অধিনায়ক হিসেবেও দারুণ। সব মিলিয়ে কেপটাউনের ওই ঘটনায় কিছুটা হলেও বিচলিত হয়ে যায় দলটি।

দলে রয়েছেন ভারতের তুখোড় ওপেনার শেখর ধাওয়ান, মানিষ পান্ডে, ইউসুফ পাঠান, ভুবনেশ্বর কুমারদের সাথে সাকিব, উইলিয়ামসন ছাড়াও অ্যালেক্স হেলস, কর্লোস ব্রেটওয়েট, রশিদ খান, মোহাম্মাদ নবি প্রমুখ।

সাকিবের সানরাইজার্সের প্রথম ম্যাচ রোববার, রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে। আর উদ্বোধনী ম্যাচ খেলবেন মোস্তাফিজ। তার দল মুম্বাইয়ের প্রতিপক্ষ চেন্নাই সুপার কিংস।

দুটি ম্যাচই বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হবে।