বিপিএলে রান পেয়ে খুশি গেইল

ক্রিকেট খেলাধুলা

প্রথম ম্যাচে তারা রান পাননি। দ্বিতীয় ম্যাচেই একসঙ্গে জ্বলে উঠলেন ক্রিস গেইল ও ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। রংপুর রাইডার্সকে জয়ে ফেরাতে রাখলেন বড় ভূমিকা। রান পেয়ে খুশি ক্যারিবিয়ান তারকা।

বিপিএলে রংপুরের হয়ে প্রথম ম্যাচে গেইল করেন ১৭, ম্যাককালাম ১৩। সোমবার দ্বিতীয় ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে গেইল ৩৯ বলে করেছেন ৫০, ২১ বলে ৩৩ রান ম্যাককালামের। তাদের ৮০ রানের উদ্বোধনী জুটি রংপুরকে দিয়েছিল বড় সংগ্রহের ভিত।

ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা গেইল সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘রান পেয়ে আমি খুশি। প্রথম ম্যাচে রান পাইনি। আজকেও শুরুটা মন্থর ছিল, ছন্দ পেতে একটু সময় লেগেছে। ম্যাককালাম সেই সময়টায় দারুণ ব্যাট করেছে। ৮ ওভারে ৮০ রানের জুটি, এই ধরনের উইকেটে দুর্দান্ত। থিতু হওয়ার পর চেষ্টা করেছি রান করতে। আমরা দুজনই আক্রমণাত্মক ক্রিকেটার। থিতু হলে আমরা রান করবই।’

এই ধরনের উইকেটে দ্রুত থিতু হওয়া খুব জরুরী বলে মনে করেন ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান, ‘এই ধরনের উইকেটে দ্রুত থিতু হওয়া খুব জরুরী। উইকেটের গতিটা একটাবার ধরতে পারলে শট ভালো খেলা যায়। উইকেটে সময় কাটাতে চেয়েছি, কারণ জানি সেটা আবার পুষিয়ে দিতে পারব। শুরুটা মন্থর হলেও তাই অস্থির হইনি, স্নায়ুকে শান্ত রেখেছি। চেষ্টা করেছি পরিকল্পনা ঠিকঠাক মতো বাস্তবায়ন করতে।’

১৭০ রান তাড়ায় ২৫ রানে ৩ উইকেট হারালেও চতুর্থ উইকেটে সাব্বির রহমান ও নাসির হোসেনের শতরানের জুটি সিলেটকে জয়ের দিকে নিয়ে যাচ্ছিল। শেষ দিকে দারুণভাবে ম্যাচে ফেরায় নিজ বোলারদের কৃতিত্ব দিচ্ছেন গেইল, ‘বলতেই হবে নাসির ও সাব্বির দারুণ ব্যাট করেছে। দলকে জয়ের অবস্থায় নিয়ে গিয়েছিল। ওদেরকে কৃতিত্ব দিতেই হবে। দ্রুত ৩ উইকেট হারানোর পর ওরা ভালোভাবে দলকে টেনেছে। তবে আমাদের বোলাররা শেষ দিকে দারুণ ভাবে ম্যাচে ফিরেছে। অধিনায়কের এক ওভারে মাত্র ২ রান দেওয়া ছিল ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। এরপর রুবেল ও থিসারা দারুণভাবে শেষ করেছে।’

টানা তিন ম্যাচ হেরে ভীষণ চাপে পড়ে গিয়েছিল রংপুর। আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে এই জয়টা খুব প্রয়োজনীয় ছিল বলে মনে করেন গেইল, ‘আজকের মাচটি আমাদের জন্য ভীষণ চাপের ছিল। সব ম্যাচই চাপের, তবে জয়ের পথে ফিরতে এই ৩ পয়েন্ট খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কালকে খুব কঠিন আরেকটি ম্যাচ অপেক্ষায়। তবে ছেলেদের আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে আজকের জয় গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’

দ্বিতীয় ম্যাচেই স্বরূপে ফেরা গেইল বাকি টুর্নামেন্টে তার বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে ভক্তদের বিনোদন দিতে চান, ‘আমার আত্মবিশ্বাস কোথাও চলে যায়নি, সব সময়ই ছিল। মাত্রই আমার দ্বিতীয় খেলা। প্রয়োজন ছিল নিজেতে ফেরার। চেষ্টা করব ভক্তদের বিনোদন দিতে, দলকে ভালো শুরু এনে দিতে এবং দলকে জয়ের পথে রাখতে।’