ভারতকে নিয়ে অবাক করা মন্তব্য করলেন রুবেল-পড়ুন বিস্তারিত

ক্রিকেট খেলাধুলা

দ্যা বাংলাদেশ টাইগার্স নকড দি ইংল্যান্ড লায়ন্স আউট অফ দ্যা ওয়ার্ল্ড কাপ’- ইংলিশ ধারাভাষ্যকার নাসির হোসেনের এই কথাটি আজও হয়তো স্মৃতির মণিকোঠায় জ্বলজ্বলে হয়ে আছে অনেক ক্রিকেট প্রেমীর।
আর নাসির হোসেনের এই ভাষ্যের উৎপত্তি হয়েছিলো যখন টাইগার পেসার রুবেল হোসেন দারুণ একটি ইয়র্কারে জেমস অ্যান্ডারসনের উইকেট উপড়ে ফেলেছিলেন। এরই সাথে ইংলিশদের বিশ্বকাপ থেকে বিদায় করে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এসেছিলো লাল সবুজের বাংলাদেশ।

অ্যাডিলেডে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচটিতে ৫৩ রানে ৪ উইকেট শিকার করেছিলেন রুবেল। মূলত দলটি ইংল্যান্ড হওয়ার কারণেই হয়তো এভাবে জ্বলে উঠতে পেরেছিলেন তিনি। সম্প্রতি দেশীয় টিভি চ্যানেল একাত্তরকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটা নিজেই জানিয়েছেন তিনি। রুবেল বলেছেন,

‘কিছু কিছু দল আছে যাদের সাথে খেলতে নামলে অটোম্যাটিকলি ভেতর থেকে অন্যরকম একটা বিষয় কাজ করে। যেমন ভারত, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড এদের সাথে এমনটা কাজ করে।’

এর আগে ইনজুরির কারণে বেশ কয়েকবার মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে রুবেল হোসেনকে। কখনও মাঠে ডাইভ দিতে গিয়ে আবার কখনো স্লাইড দিয়ে কাঁধের ইনজুরির কবলে পড়েছেন রুবেল। তবে এসব নিয়ে খুব একটা আক্ষেপ নেই তাঁর। টাইগার পেসারের মতে দেশের জার্সিতে মাঠে নামলে ভয়ডর থাকে না কারোই। তাঁর ভাষ্যমতে,

‘দেশের জন্য যখন মাঠে নামি তখন তেমন ভয়ডর থাকে না। একটা ডাইভ দিলে যে ইনজুরিতে পরে যাবো তখন আমাদের মাথার ভেতর এসব আসলে থাকে না। আমি যখন প্রথম কাঁধের ইনজুরিতে তখন প্রায় এক বছর মাঠের বাইরে ছিলাম। আমার একটি স্লাইড দেয়ার কারণেই এই ইনজুরিতে পড়েছিলাম।’

রুবেল আরও যোগ করেন, ‘আসলে খেলার সময় এসব খেয়াল থাকে না। একটি ডাইভ দিলাম, কিংবা স্লাইড দিলাম তখন আমাদের কাঁধের ইনজুরি হতে পারে অথবা লিগামেন্ট ছিঁড়ে যেতে পারে এসব কিছু চিন্তা থাকে না। তখন মাথায় থাকে যে বলটিকে আমাকে যেভাবেই হোক সেভ করতে হবে।