মরুভূ‌মির দে‌শের গা‌নে গা‌নে ফোক ফে‌স্টের সমা‌প্তি

বিনোদন

মরুভূ‌মির ব্যা‌ন্ড তিনা‌রিও‌য়ে‌নের গা‌নে গা‌নে এবা‌রের ম‌তো শেষ হল ঢাকা আন্তর্জাতিক ফোক ফে‌স্টিভ্যাল ২০১৭। উত্তর মালির সাহারা মরুভূমির ব্যান্ড ‘তিনারিওয়েন’ উৎস‌বের শেষ দিন শ‌নিবার আর্মি স্টে‌ডিয়া‌মের ম‌ঞ্চে উঠেছিল রাত সা‌ড়ে ১২টায়। শাদা জোব্বা মাথায় পাগড়ি পরা দলটি গানও বেশ উপ‌ভোগ ক‌রে‌ছেন দর্শক শ্রোতা। রাত ১টার প‌রে শেষ হয় তা‌দের গান।

গা‌নের দল‌টি যাত্রা শুরু করে ১৯৭৯ সালে আলজেরিয়ার তামানরাসেটে। ১৯৯০ সালে দেশটিতে তুয়ারেগ বিদ্রোহ শুরু হলে চলে আসে মালিতে। শুরুতে পরিবেশন করতে থাকে সাহারা অঞ্চলের গান। এরপর ধরে আরবের আধুনিক পপ ঘরানার গান।

২০০১ সালে মালিতে নিজেদের প্রথম অ্যালবাম ‘দ্য রেডিও তিসদাস সিজনস’ প্রকাশ করে তারা। মালির ইসাকানে ‘ফেস্টিভাল অব ডেজার্ট’ এবং ডেনমার্কের ‘রোজিল্ড ফেস্টিভাল’-এ গান পরিবেশন করে প্রশংসা কুড়ায় ব্যান্ডটি।

২০০৭ সালে প্রকাশিত ব্যান্ডটির তৃতীয় অ্যালবাম ‘আমান ইমান : ওয়াটার ইজ লাইফ’ আন্তর্জাতিকভাবে জনপ্রিয়তা পায়। ২০১২ সালে ‘তাসসিলি’ অ্যালবামটির জন্য ‘বেস্ট ওয়ার্ল্ড মিউজিক’ ক্যাটাগরিতে সংগীতের সবচেয়ে বড় পুরস্কার ‘গ্র্যামি’ জেতে তারা।

লোকসংগীত ছাড়াও ব্লুজ, রক ও ওয়ার্ল্ড মিউজিক করে থাকে ব্যান্ডটি। বিশ্বের বড় অনেক উৎসবে গান করেছে ‘তিনারিওয়েন’। প্রথমবা‌রের ম‌তো বাংলা‌দে‌শে গান গাইলো দল‌টি।

উপমহাদেশের সবচেয়ে বড় লোকসংগীতের আসর ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব’ শুরু হয় বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে।

উৎসবে বাংলাদেশের শিল্পীরা ছাড়াও গান পরিবেশন ক‌রেন ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, ইরান, ব্রাজিল, মালি, ফ্রান্স, জাপানের ১৪০ জন সংগীতশিল্পী।

বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে সান কমিউনিকেশন ও মাছরাঙা টেলিভিশন আয়োজন করেছে তিন দিন ব্যাপী এই লোকসংগীতের আসর।