‘মাহমুদউল্লাহ অসাধারণ অধিনায়ক’

ক্রিকেট খেলাধুলা

রাজশাহী কিংসকে ৬৮ রানে হারিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করেছে খুলনা টাইটানস। কয়েক ঘণ্টার জন্য ঢাকা ডায়নামাইটসের কাছে শীর্ষস্থান হারানো খুলনা ৯ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে এখন সবার উপরে। বিশাল এই জয়ে ব্যাট হাতে ২৬ বলে ৫৭ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলার পুরস্কার হিসেবে ম্যাচসেরা হয়েছেন নিকোলাস পুরান। জেতার পর সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর প্রশংসা ঝরেছে তার মুখে।

বিপিএলের গত আসরে নিজের অধিনায়কত্ব দিয়ে তুলনামূলক দুর্বল দল নিয়েও খুলনাকে অনেক দূর নিয়ে গিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। এবার ফ্র্যাঞ্চাইজিটিকে রেখেছেন তিনি টেবিলের শীর্ষে। গত মৌসুমের পর এবারও খুলনার জার্সিতে খুব কাছ থেকে বাংলাদেশি তারকাকে দেখছেন পুরান। সেই অভিজ্ঞতা থেকেই তিনি বললেন, ‘মাহমুদউল্লাহ অসাধারণ অধিনায়ক। সব দলই চায় অধিনায়ক সামনে থেকে নেতৃত্ব দেবে। গত বছরও আমাদের অধিনায়ক (সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে) সেমিফাইনালে তুলেছিল। এবারও সে তেমনটাই করছে।’

৩৮ বলে ৫ ছক্কায় আফিফ হোসেন খেলেছেন হার না মানা ৫৬ রানের ইনিংস। তরুণ এই ক্রিকেটারের প্রশংসাও ঝরল পুরানের কণ্ঠে, ‘সে অসাধারণ খেলোয়াড়। বাংলাদেশের জন্য দারুণ এক প্রতিভাবান ক্রিকেটার। দারুণ দক্ষতায় আফিফ পাঁচটি ছক্কা মেরেছে। তার হাতে দারুণ স্টোকস আছে, যা দেখতে অসাধারণ।’

খুলনা টাইটানস ‘একটি পরিবার’ উল্লেখ করে এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বলেছেন, ‘খুলনা টাইটানসের ম্যানেজমেন্ট খুব ভা্লো। দলটিতে দারুণ এক কোচ আছে, আমরা পরিবারের মতো। অনুশীলনে আমরা কঠোর পরিশ্রম করি। এই মুহূর্তে সঠিক কম্বিনেশনে আছে দলটি। আশা করি আমরা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারব।’

বিপিএলে খুলনা টাইটানসের হয়ে ১৪ ম্যাচ খেলেছেন পুরান। যেখানে সোমবারই প্রথম হাফসেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন তিনি। ৫৭ রানের ইনিংস খেলে আত্মবিশ্বাস আরও বেড়েছে তার, ‘আমি আত্মবিশ্বাসী। রান করলে সবারই আত্মবিশ্বাস বাড়ে। আশা করি সামনে যখন সুযোগ পাব, চেষ্টা করব ভালো করার।’