মুম্বাইয়ের হারের পর এই চিয়ারলিডার যা করলেন

ক্রিকেট খেলাধুলা

আইপিএল চিয়ারলিডাররা কেবল টাকা রোজগারের জন্য এই দেশে আসেন না। তাদেরও রয়েছে কোমল মন। গত বার কলকাতা নাইটরাইডার্স হেরে যাওয়ার পরে তাদের দলের এক চিয়ারলিডার কাঁদতে শুরু করে দিয়েছিলেন। যে দলের হয়ে ‘চিয়ার’ করতে এসেছেন, সেই দলের সাফল্য দেখতে চান তারা। প্রিয় দল হেরে গেলে দুঃখ জমে মনে। তারই বহিঃপ্রকাশ চোখ থেকে নেমে আসে পানির ধারা।

এবারও অনেকটা সেরকম দৃশ্যই দেখা গেল চলতি আইপিএল-এ ২০১৮ সিজন ১১তে । প্লে অফে পৌঁছনোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। মুম্বাই ১১ রানে হেরে যায় দিল্লির কাছে। এই হারের ফলে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যেতে হয় রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে। দিল্লি ডেয়ারেডেভিলস প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ১৭৪ রান তোলে। এই রান তাড়া করতে নেমে মুম্বাই থেমে যায় ১৬৩ রানে। রান তাড়া করতে নেমে একটা সময় ৭৮ রানের মধ্যেই পাঁচ-পাঁচটা উইকেট হারিয়ে ফেলে মুম্বাই। দলের বিপদে হার্দিক পাণ্ড্য বেশ ভালই খেলছিলেন কিন্তু একটা বিশ্রী শটে হার্দিক আউট হতেই মুম্বাই সমর্থকরা হতাশ হয়ে পড়েন। এই অলরাউন্ডারের আউট হওয়ার ধরন ধারণ দেখে এক চিয়ারলিডারও হতাশ হয়ে পড়েন। মাথায় হাত দিয়ে বসে থাকেন তিনি।

হার্দিক প্যাভিলিয়নে ফিরতেই মুম্বাইয়ের জয়ের আশা কমে যায়। তার এভাবে ফিরে যাওয়া মেনে নিতে পারেননি সেই চিয়ারলিডারও। মাঠের বাইরে বসে থাকলেও ম্যাচের উত্তাপ ছুঁয়ে যায় তাকে। সেই চিয়ারলিডারের প্রতিক্রিয়া ধরা পড়ে ক্যামেরাতেও। আর এইভাবেই ক্রিকেটের সঙ্গে মিশে যায় জীবন। বাইশ গজের সঙ্গে যুক্ত হয় জীবনের সাতরঙা বিস্ময় ও আবেগ।