মেসির গোল বাতিলে উত্তাল ফুটবলবিশ্ব

খেলাধুলা ফুটবল

লা লিগায় ‘ভুতুড়ে গোল’ কাণ্ডে উত্তাল হয়ে উঠল ফুটবলবিশ্ব!

রবিবার রাতে ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে লা লিগার ম্যাচে জর্ডি আলবা-র গোলে বার্সেলোনা হার বাঁচালেও আলোচনার কেন্দ্রে লাইন্সম্যানের বিতর্কিত সিদ্ধান্ত।

ম্যাচের ৩০ মিনিটে মেসির শট ভ্যালেন্সিয়া গোলরক্ষক নরবার্তো মুরারা নেটোর হাত ফস্কে গোল লাইন পেরিয়ে যায়। টেলিভিশন রিপ্লেতেও স্পষ্ট দেখা গিয়েছে, গোলের ভিতর থেকেই বল বার করছেন নেটো। কিন্তু লাইন্সম্যান গোল বাতিল করে দেন। ক্ষিপ্ত মেসি সাইডলাইনের ধারে গিয়ে তর্ক জুড়ে দেন লাইন্সম্যানের সঙ্গে। তাতেও অবশ্য সিদ্ধান্ত বদলায়নি।  সাত বছর পর টানা ছ’ম্যাচে গোল পেলেন না বার্সেলোনা তারকা। কিন্তু রবিবার রাতে মেসিকে বেশি বিধ্বস্ত দেখিয়েছে ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে গোল বাতিল হওয়ায়।

ম্যাচের পর ক্ষুব্ধ বার্সেলোনা ম্যানেজার আর্নেস্তো ভালভার্দে বলেছেন, ‘‘পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছিল ওটা গোল ছিল।’’ আর ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে বার্সেলোনার ত্রাতা জর্ডি আলবা বলেছেন, ‘‘মারাত্মক ভুল করেছেন রেফারি। মাঝমাঠে দাঁড়িয়েও আমি স্পষ্ট দেখেছি, বলটা গোল লাইন পেরিয়ে গিয়েছিল। শুধু তা-ই নয়। হাফটাইমে ড্রেসিংরুমের টিভিতে বারবার রিপ্লেও দেখেছি। বল যে গোললাইন পেরিয়ে গিয়েছিল, তা নিয়ে সংশয় নেই।’’ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটেও রেফারি ও লাইন্সম্যানের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ঝড় উঠতে শুরু করে।

সেই বিতর্কিত মুহূর্ত।

গত মরসুমেও লা লিগায় একই ঘটনার শিকার হয়েছিল বার্সেলোনা। রিয়াল বেতিসের বিরুদ্ধে একই রকম ভাবে গোল বাতিল হয়েছিল তাদের। সেই ম্যাচও শেষ হয়েছিল ১-১ ফলে। তবে রবিবার রাতের ঘটনার পর লা লিগায় ভিডিও অ্যাসিট্যান্ট রেফারি (ভার) নিয়োগের দাবি তুলে দিলেন বার্সেলোনা তারকা সের্জিও বুস্কেৎস। তিনি বলেছেন, ‘‘ভিডিও রেফারি নিয়োগ করে হয়তো সব সমস্যার সমধান হবে না। তবে এই ম্যাচে যে ঘটনা ঘটল, আশা করি তার পুনরাবৃত্তি হবে না।’’ সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘লা লিগা বিশ্বের অন্যতম সেরা লিগ। তাই সেরা প্রযুক্তি ব্যবহার করা উচিত। কারণ রেফারি বা লাইন্সম্যানের পক্ষে কখনওই বোঝা সম্ভব নয়, বলটা আদৌ গোললাইন পেরিয়েছিল কি না।’’ চলতি মাসেই অবশ্য স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের কর্তারা ঘোষণা করেছেন, আগামী মরসুম থেকে ভিডিও রেফারি প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে।

বার্সেলোনার বিরুদ্ধে ম্যাচের ৬০ মিনিটে গোল করে ভ্যালেন্সিয়াকে এগিয়ে দেন রদরিগো মাচাদো। ৮২ মিনিটে সমতা ফেরান জর্ডি আলবা। ড্র করলেও ১৩ ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে এই মুহূর্তে লিগ টেবলের শীর্ষে বার্সেলোনা। সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ নেমে গিয়েছে চতুর্থ স্থানে।