মেসির রক্তাক্ত ছবি দিয়ে আইএসের হুমকি টার্গেট 2018 বিশ্বকাপ

অপরাধ ও দুর্নীতি খেলাধুলা প্রধান খবর ফুটবল

জঙ্গি সংগঠনের দৌরাত্ম্য নতুন করে বলার কিছু নয়। খোদ লন্ডনই কদিন পর পর শিকার হচ্ছে জঙ্গি হামলার। ফুটবলও এর হাত থেকে মুক্তি পাচ্ছে না। বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বাসে বোমা হামলা হয়েছে। রাশিয়া বিশ্বকাপ নিয়ে বেশ কয়েকবার হুমকি দিয়েছে আইএস (ইসলামিক স্টেট)। গতকাল হুমকি দিতে তারা ব্যবহার করল ফুটবলের সবচেয়ে জনপ্রিয় মুখগুলোর একটি। স্বয়ং লিওনেল মেসিকে রক্তাক্ত করে বিশ্বকাপে ত্রাস ছড়ানোর হুমকি দিয়েছে সংগঠনটি।
ফুটবলের প্রতি আইএসের বিতৃষ্ণা নতুন কিছু নয়। গত বছর ইরাকের রিয়াল মাদ্রিদ সমর্থকদের ক্লাবে হামলা চালিয়েছিল আইএস। দুই হামলায় ২৮ ফুটবল সমর্থককে খুন করেছিল তারা। এই সংগঠনের নিয়ন্ত্রণাধীন অবস্থায় মসুল শহরে ফুটবল খেলা ছিল আতঙ্কের অন্য নাম। তবে রাশিয়া বিশ্বকাপ নিয়ে তাদের ঘৃণা ছাপিয়ে গেছে সবকিছু। আইএস-পন্থী মিডিয়া সংঘটন ওয়াফা মিডিয়া ফাউন্ডেশন কাল একটি পোস্টার প্রকাশ করেছে। সে ছবিতে দেখা গেছে, হাজতে আটকে থাকা লিওনেল মেসিকে। মেসির চোখ বেয়ে নামছে রক্ত। আর পাশে লেখা ‘জাস্ট টেররিজম’!
এতেও সন্তুষ্ট হয়নি সংগঠনটি। হুমকিটা যেন হেসে কেউ উড়িয়ে না দেয়, সে জন্য আরও লিখে দিয়েছে, ‘তোমরা এমন এক দলের সঙ্গে লড়ছ, যাদের অভিধানে ব্যর্থতা বলে কিছু নেই।’ সাইট ইন্টারন্যাশনাল গ্রুপ সবার নজরে এনেছে এ পোস্টার। সাধারণত আইএসের খবরগুলো এদের মাধ্যমেই বহির্বিশ্ব জানতে পারে।
ওয়াশিংটন পোস্টের এক সাংবাদিক জানিয়েছেন, এর আগেও এমন হুমকি দিয়েছে আইএস। রাশিয়া বিশ্বকাপের লোগো বিস্ফোরিত হচ্ছে, এমন পোস্টারও ছড়ানো হয়েছিল। এ ছাড়া স্টেডিয়ামের দিকে তাকিয়ে আছেন এক সৈন্য, এমন এক ছবি দিয়ে বলা হয়েছিল, ‘আমি প্রতিজ্ঞা করছি, মুজাহিদদের আগুন তোমাকে পোড়াবে, অপেক্ষায় থাকো।’
এ ছাড়া ‘আমরাই যুদ্ধক্ষেত্র ঠিক করি’ লিখে একটা পোস্টার ছাপিয়েছিল তারা। ইঙ্গিতটা পরিষ্কার, রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুকে যুদ্ধক্ষেত্রে রূপ দিতে চায় আইএস!