মেসি কি তবে হার মানবেন রোনালদোর কাছে?

খেলাধুলা ফুটবল

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো গোল পেয়েছে আর তার দল ইউসিএল এ টপ লেভেল পার্ফরম করেছে। অথচ হাই পাওয়ার ফ্রন্ট থ্রি নিয়ে শেষ ৪ সিজনে বার্সা কোয়ার্টারেই নকড আউট। সমস্যাটা ঠিক কোথায়?

মেসির সিজন পার্ফমেন্স রোনালদোর থেকেও বেষ্ট ছিলো। কিন্তু পুরষ্কার রোনালদোই পাবে। কারন এজ এ টিম ইউথ মাদ্রিদ সে ট্রফি জীতেছে। যেদিকটায় বার্সা গোল বাঁধিয়েছে। লুইস এনরিকে লোকটা এসেই পুরো বার্সা মিডকে শশ্মান বানিয়ে দেয় । উয়িথাউট পাসিং বার্সাকে ডাইরেক্ট ফুটবল খেলাতে শুরু করে। ফলাফল মিড ডেড।
এই লোকটি ফিরিয়ে দিয়েছে ইস্কোকে । টনি ক্রুসকে ফিরিয়ে দিয়েছে ৩ বার। এখন তারা বেষ্ট মিডফিল্ডার ইন দ্যা ওয়ার্ল্ড।

বার্সোলোনা ফুটবল পিচে এখনো এলোমেলো। সিরিয়াস একটা হজবরল! পুরো স্কোয়াড মেসি নির্ভর এবং স্কোরিং ও গোল চাঞ্চ ক্রিয়েটে এক মেসির দিকেই তাকিয়ে থাকা লাগে। রিয়ালে চাঞ্চ ক্রিয়েটর মদ্রিচ, ক্রুস, ইস্কোরা আর বার্সার চাঞ্চ ক্রিয়েটর মেসি। ইভেন মেসির ক্রিয়েট করা ক্লিয়ার চাঞ্চ ও জালে পাঠাটে জঘন্য রকমের ব্যার্থ। এই মুহুর্তে স্কোয়াডে নেই কোন লিথ্যাল ফিনিশার।

অন্যদিকে রিয়ালের স্কোয়াডে মুল ফিনিশার কিন্তু রোনালদোই। মিড আর লেফট ব্যাক রাইট ব্যাক থেকে এত পরিমান সাপ্লাই বা রিয়ালের সাপ্লাই লাইন এত পরিমান স্ট্রং যে শুধু মাত্র ট্যাপইন করেও ব্যালন ডি ওর জেতা যায়।

এদিকে বার্সার মুল ফিনিশার কিন্তু মেসিই। এবং তার ম্যাক্সিমাম গোল প্রি এসিস্টেড, সলো, ফ্রি কিক, কদাচিৎ এসিস্টেড।

অর্থাৎ নিজের গোলের পুরা ক্রেডিট টা একা ওর ই। আগে গোল চাঞ্চ ক্রিয়েট করে সাইড থেকে সাপোর্ট নিয়ে গোল করে। কিন্তু সেখানেও সমস্যা। ব্যাকপাস ঠিক যায়গায় আসে না। খেয়াল করলে বুঝবেন আগে মেসিকে বার্সায় পাস সাপ্লাই করা হতো কমফোর্টেবল যায়গায়। কিন্তু এখন পাস সাপ্লাই দেয়া হয় টোটালি ডিসগাস্টিং এরিয়ায়। মাঝে মাঝে মেসিকে ফিরতি পাস দেবার আগে বল হারায় কারন বাজে ফার্ষট টাচ। অন্যদিকে রিয়ালে ব্যাপারটা ভিন্ন। রোনালদকে ট্যাপ ইন ও পেনাল্টি রেডি করে দেয়াই হলো রিয়াল বাকী স্কোয়াডের কাজ।

মেসি নিজের জন্যে প্রপার টিম পাওয়ার অধিকার আছে। জালিয়াৎ দের দ্বারা পরিচালিত একটা ক্লাব ছাড়ার অধিকার মেসি রাখে। যারা কিনা ক্লাবটাকে ধংস করতে চায়। এখন মেসি ক্লাব ছাড়লে কোন কিউলের অভিযোগ করা উচিত হবে?

যারা গত সিজনের মেসিকে দেখেছেন তারা জানেন মেসি কতটা অসাধারণ পার্ফম করেছে। কিন্তু তাকে টেনে নিচে নামালো একটা ম্যানেজমেন্ট। যেন জোর করে হারিয়ে দিলো।

 

বার্সেলোনা এখন মেসির জন্যে আররেকটা আর্জেন্টিনা হয়ে গেছে। যতক্ষন একলা বাঁচিয়ে তুলবে ততক্ষন হীরো। আর বাঁচাতে না পারলেই ভীলেন। সো ভীলেন হবার আগেই ক্রিমিনালদের (বোর্ড) সংসার ছেড়ে দেয়া উচিত নয় কি??

আমি দু:খিত আমি স্বার্থপর এর মত বলছি কিন্তু একটা ডুবন্ত টাইটানিক এর ক্যাপেন্ট থাকাটা বিপজ্জনক।
মেসি ফুটবল ইতিহাসের গ্রেটেষ্ট অফ অল টাইম। ফুটবল ফ্যানদের দিয়ে গেছে অপরিসীম আনন্দ আর এখন আশে পাশের মধ্যমানের প্লেয়ার ঘেরা একটা টিমে ফেঁশে আছে।
এটাই উপযুক্ত সময় সে ব্যালেন্সড একটা টিম ডিজার্ভ করে। সে বার্সা, পেপ গার্দিওলা, ম্যান সিটি বা ম্যান ইউ যেখানেই থাকুক সেখানে মেসির জন্যে বেষ্ট স্কোয়াড থাকা চাই। বয়স এখন ৩০ এই বয়সের ফুটবলার যে কোন এংগেল থেকে সবথেকে বেশি পরিনত ফুটবলার। আর মেসি তো মেসিই।

মেসির ফুটবলিয় এবিলিটি অন্য যে কোন ফুটবলার থেকে বহুদুর। তার কাছাকাছি লেভেল পাওয়াও গর্বের। এজন্যেই তুলনা চলে অমুক মেসির মত তমুক মেসির মত কিন্তু মেসি মেসিই। আছে ছিল থাকবে।

কিছু কিছু মানুষ ও সাংবাদিক মেসির সাথে ক্রিস্টিয়ানোর তুলনা করে সবাই ভাবে এ দৈরথ কবে শেষ হবে। কিন্তু ক্যারিয়ারের শেষের আগামী ৫ বছর মেসিই টপ এ থাকবে। যেসব সাংবাদিক এখনো ভাবছে রোনালদো আরো ৫ বছর মেসিকে টেক্কা দেবে তাহলে আমি বলবো তারা এখনো পর্যাপ্ত পরিমানে মেসিকে দেখেনি।

লাপোর্তর পরে আসা ক্রিমিনাল সান্দ্রো রাসেল যে এখন জেলে আর ক্লাব চালাচ্ছে তার গ্যাং ষাঁড় বার্তামিউ এন্ড গং এখানে থাকা সিরিয়াস বিপজ্জনক।
একজন কিউল হিসেবে মেসির চলে যাওয়া দেখাটা আমার জন্যে কষ্টের কিন্তু একজন ফুটিবল লাভার হিসেবে এখানে প্রতি বছর গ্রেটেষ্ট অফ অল টাইমকে ধুঁকতে দেখাটা যন্ত্রনার।
ভীষণরকম যন্ত্রনার।