মেয়ের iPhone X ভিডিও ভাইরালের কারণে চাকরি গেল অ্যাপল প্রকৌশলীর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপলের আইফোন X প্রিঅর্ডার হয়েছে ২৭ অক্টোবর কিন্তু গ্রাহকের হাতে এখনও পৌঁছায়নি এই ফোন। আর এরই মধ্যে সপ্তাহ জুড়ে আইফোন X সম্পর্কিত ভাইরাল ভিডিও’র কারণে শেষ পর্যন্ত চাকরি খোয়াতে হলো অ্যাপল প্রকৌশলীর।

গত সপ্তাহে অ্যাপল ক্যাফেটেরিয়ায় আইফোন X নিয়ে করা একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যায়। ভাইরাল হওয়া আইফোন X এর হ্যান্ডস-অন ভিডিওটি একজন অ্যাপল প্রকৌশলীর মেয়ে ব্রুক অ্যামেলিয়া পিটারসন ধারণ করে তার ইউটিউব চ্যানেলে পোস্ট করেছিলেন। ভিডিওতে পিটারসন আইফোন X অ্যাপল পে এবং এক্সক্লুসিভ ইউজার ইন্টারফেস ফিচার দেখিয়েছিলেন। এবং অনিচ্ছাকৃতভাবে তিনি প্রতিষ্ঠানের কিছু নিয়ম লঙ্ঘন করে ভিডিও করেছেন এবং তা পোস্ট করেছেন। যা পরে ভাইরাল হয়ে যায়।

অ্যাপল এর কর্পোরেট নীতিতে তাদের ক্যাম্পাসের ভিতরে চিত্রগ্রহণ নিষেধ এবং আইফোন X এই সময়ে একটি পরিচিত ডিভাইস যা এখনও বাজারে আসেনি। আর তাই সমস্যাটি একটি সাধারণ নিয়মের মধ্যে পড়ে। অ্যাপলের অনুরোধে তিনি ভিডিওটি সরিয়েও নেন। কিন্তু ততক্ষণে ভিডিওটি সব জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে।

আর এর পরে পিটারসন একটি ফলো আপ ভিডিও পোস্ট করেছেন ওই ভিডিওটির ব্যাখ্যা দিয়ে এবং পিটারসন তার ভিডিও বিবৃতিতে বলেছেন, এজন্য প্রতিষ্ঠান তার বাবাকে ছাঁটাই করেছে। অ্যাপলে অপ্রকাশিত হার্ডওয়্যার পণ্যের কোনো তথ্য বা ভিডিও ধারণ কঠোরভাবে নিষিদ্ধ। হোক না তা ফোনের ফিচার, ছবি বা ভিডিও। পিটারসন বলেন, দিন শেষে আপনি যখন অ্যাপলের জন্য কাজ করেন, তখন আপনি কতটা ভালো মানুষ তা বিষয় না, যদি আপনি একটি নিয়ম ভাঙেন তবে তাদের কোনো সহনশীলতা নেই।

যদিও পিটারসনের মূল ভিডিওটি নিরপেক্ষ বলে মনে হয়েছিল। কিন্তু এই ভিডিওতে কোম্পানির কিউআর কোড এবং সেইসাথে একটি নোট অ্যাপ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল যা ভবিষ্যতের অ্যাপল পণ্যগুলির জন্য কোডনামগুলির একটি তালিকা হতে পারে। তবে অ্যাপল এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করেনি বা বরখাস্তের ব্যাপারে কোনো কিছু বলেনি।

এই ঘটনায় পিটারসনের ব্যাখ্যা (ভিডিও)

https://youtu.be/XQzGKwjr_js