ম্যানসিটিকে উড়িয়ে দশ বছর পর সেমি ফাইনালে লিভারপুল

খেলাধুলা ফুটবল

মুখে দাঁড়ি-গোফে ভর্তি লিভারপুল কোচকে দেখে মনে হচ্ছিল তার দম বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। মাঝে মাঝেই মাঠের দিক থেকে মুখ ঘুরিয়ে উপর দিকে মুখ করে হা করে নিশ্বাস নিলেন তিনি। যাবেই বা না কেন! শুরুর দুই মিনিটেই গোল দিয়ে চোখ রাঙাচ্ছিল পেপ গার্দিওয়ালার শিষ্যরা। প্রথমার্ধে ৭২ ভাগ বল নিজেদের পায়ে রেখে এবং একের পর এক আক্রমণ করে লিভারপুলের দম বন্ধ করার ব্যবস্থাই করেছিল সানে-ব্রুইনি-জেসুসরা।

কিন্তু সে পরিস্থিতি ম্যাচের ৫৫ মিনিট পর্যন্ত। চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-০ গোলে এগিয়ে থাকা লিভারপুল ৫৬ মিনিটে গোল করে দীর্ঘ নিশ্বাস নিল। গোল করে লিভারপুল কোচ জার্গেন ক্লপের মুখে হাঁসি ফোটালেন মোহাম্মদ সালাহ। এরপর ম্যাচের ৭৭ মিনিটে ফিরমিনহোর গোলে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-১ গোলের ব্যবধানে সেমি ফাইনালে ওঠে লিভারপুল।

এরআগে ২০০৮ সালে শেষ চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনাল খেলার স্বাদ পেয়েছে অল রের্ডসরা। সেবার চেলসিকে হারিয়ে সেমিফাইনাল খেলে লিভারপুল। অলরের্ডসদের সেমিফাইনা খেলতে সেবার বেশ ঘাম ঝরাতে হয়েছিল। জিতেছিল দুই লেগ মিলিয়ে ৪-৩ ব্যবধানে।