ম্যানসিটি ছেড়ে শৈশবের ক্লাবে যাচ্ছেন আগুয়েরো

খেলাধুলা ফুটবল

খেলোয়াড়ী জীবন শেষ করার আগে শৈশবের ক্লাব ইন্ডিপেন্ডিয়েন্তেতে ফিরতে চান সার্জিও আগুয়েরো। আগামী মৌসুম শেষেই তা বিবেচনা করতে পারেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। ২০১৯ সালে ম্যানচেস্টার সিটি অধ্যায়ের ইতি টানার ইঙ্গিত দিয়ে রাখলেন সাবেক অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ তারকা।

আর্জেন্টিনার ইন্ডিপেন্ডিয়েন্তে ক্লাবে প্রত্যাবর্তন আগুয়েরোর সবসময়ের ইচ্ছা। এখানেই তার ফুটবলের হাতেখড়ি। মাত্র ১৫ বছর বয়সে সিনিয়র টিমে অভিষেকের আগে যুব একাডেমিতে ছয় বছর কাটিয়েছিলেন।

ইন্ডিপেন্ডিয়েন্তের হয়ে পেশাদার ফুটবলে তিন বছর খেলে পাড়ি জমান স্পেনে। অ্যাতলেতিকোর জার্সিতে পাঁচ মৌসুম পর ২০১১ সালে যোগ দেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ জায়ান্ট ম্যানসিটিতে। সিটিজেনদের আক্রমণভাগের অপরিহার্য খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন ২৯ বছর বয়সী এই তারকা ফরোয়ার্ড।

ম্যানসিটির সঙ্গে আগুয়েরোর বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে ২০১৯ সালে। বাড়তি এক বছরের বিকল্পও রাখা হয়েছে। বর্তমান কোচ পেপ গার্দিওলার টিমে গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হলেও অদূর ভবিষ্যতে স্মৃতিবিজড়িত স্বদেশী ক্লাবটিতে ফিরতে চান ম্যানসিটি আইকন। সে যাই হোক, ইউরোপিয়ান দলবদলের বাজারে বড় ক্লাবগুলোতে কিন্তু এখনো আগুয়েরোর চাহিদা জোরালো।

আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলতে এখন রাশিয়ায় অবস্থান করছেন আগুয়েরো। সেখানেই সংবাদমাধ্যমকে ভবিষ্যৎ ক্লাব ক্যারিয়ারের পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলেন আগুয়েরো, ‘বলা হচ্ছে এসি মিলান ও রিয়াল মাদ্রিদ আমাকে পেতে চায়। আমি জানি না কোথায় এটি পড়েছি-কিন্তু তারা বলেছে। তারা শুধু আমার ইন্ডিপেন্ডিয়েন্তে স্বপ্ন নষ্ট করছে।’

‘কিন্তু বরাবরই লক্ষ্য ছিল ইন্ডিপেন্ডিয়েন্তে ক্লাবে ফিরে যাওয়া যখন ম্যানসিটির সঙ্গে আমার চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে ২০১৯ সালে। আমার হাতে চুক্তির মেয়াদ আরও এক বছর বাড়িয়ে নেওয়া অপশন রয়েছে যেটাতে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে, কিন্তু এটা সবসময় একটা বিকল্প।’-যোগ করেন আগুয়েরো।

প্রিমিয়ার লিগে আট গোল নিয়ে বর্তমানে টটেনহামের হ্যারি কেনের সঙ্গে যৌথ টপস্কোরার আগুয়েরো। আমস্টারডামে গাড়ি দুর্ঘটনায় পাঁজরের ইনজুরির কারণে অাটটি ম্যাচ খেলেছেন সিটিজেনদের ‘নাম্বার টেন’। ১১ ম্যাচ শেষে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ছন্দে থাকা ম্যানসিটি (১০ জয় ও ১ ড্র)।