যে কারণে সালমানকে চড় মারলেন সঞ্জয় দত্ত!

বলিউড বিনোদন

বলিউডের অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত নানা রকমের আলোচনায় সমালোচিত। সম্প্রতি তিনি আরো এক সমালোচনায় নিজের নাম জড়ালেন। তারকা পরিচালক রাজকুমার হিরানির পরিচালিত সঞ্জয়ের বায়োপিক ‘সাঞ্জু’র টিজার নিয়ে এই সমালোচনায় জড়ালেন তিনি।

গত ২৪ এপ্রিল মুক্তি দেওয়া হয় সঞ্জয়ের বায়োপিক ‘সাঞ্জু’র টিজার। আর এই টিজার মুক্তির পরই শুরু হয় বিতর্ক। টিজারের একটি অংশে নাকি বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে চড় মারছেন সঞ্জয় দত্ত- এমন দৃশ্য রয়েছে। এ নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। কেন সালমানকে চড় দিলেন সঞ্জয়। এটাকে কিভাবেই বা ছবিতে উপস্থাপন করলেন পরিচালক রাজকুমার হিরানি? বিষয়টিকে কিভাবে নেবেন সালমানের অগণিত ফ্যান-ফলোয়ার? এতে কী সালমানের সম্মানহানি হয়নি!

বিষয়টি নিয়ে যখন বিতর্ক শুরু হয় তখন এই বিষয়টির পক্ষে বক্তব্য তুলে ধরেন অনেক বলিউড মুভি অ্যানালিস্ট। ‘সাঞ্জু’ বায়োপিকে সঞ্জয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রণবীর কাপুর আর সালমান খানের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জিম সর্ব। আসুন, এই বিতর্ক নিয়ে মুভি অ্যানালিস্ট ও চলচ্চিত্র সমালোচকদের বক্তব্য একটু শুনে নিই।

সালমান ও সঞ্জয় দত্তকে বরাবরই ভালো বন্ধু হিসেবে জেনেছে সবাই। ‘চল মেরে ভাই’ ও ‘সাজান’ ছবিতে তাঁদের দুজনের কেমিস্ট্রি নায়ক-নায়িকার কেমিস্ট্রিকেও ছাড়িয়ে যায়।

এই দুজনের মাঝে ফাটল আনে যে ঘটনাটি সেটা বেশ পুরনো। ২০০৭ সালের জুলাই মাস। সঞ্জয়ের টাডা মামলার সাজা হয়। আদালত তাঁকে ৬ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের রায় শোনান। কিন্তু ২ মাস কারাভোগের পর আগস্টেই বেরিয়ে আসেন সাঞ্জু বাবা। এ বিষয়ে সালমান বেশ কিছু বাজে মন্তব্য করেন যা সঞ্জয়কে বিব্রত করে।

জামিনে মুক্ত হয়েই সঞ্জয় সালমানের ঘরে পৌঁছান ও তাঁর সঙ্গে বিবাদে জড়ান। যদিও এই ঘটনার পর দুজনের মাঝে সবকিছু আবার আগের মতো ঠিক হয়ে যায়।

এর পর ২০১১। আবার মুখোমুখি অবস্থান নেন সঞ্জয় দত্ত আর সালমান খান। সঞ্জয়ের স্ত্রী মান্যতা দত্তের জন্মদিনের পার্টিতে ঘটে সেই ঘটনা। সেই পার্টিতে কী হয়েছিল তা নিয়ে অবশ্য ধোঁয়াশা আছে। তবে যেটুকু জানা গেছে তা হলো, পার্টিতে সালমানের সাথে বচসা বাঁধে বলিউড প্রযোজক বান্টি ওয়ালিয়ার। তাঁদের কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে এন্ট্রি নেন সঞ্জয়স্ত্রী মান্যতা। এ সময় সালমান মান্যতার সাথে দুর্ব্যবহার করেন। আর এতেই খেপে যান সঞ্জয়। তাঁদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়।

সঞ্জয়ের বায়োপিকে যে চড়ের ঘটনা দেখানো হয়েছে- তা এই দুটির কোনো একটির বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে ‘চড় মারা’র এই দৃশ্য দেখার পর বলিউড ভাইজান কী অবস্থানে যান তা একমাত্র ভবিষ্যৎই বলে দিতে পারে।

উল্লেখ্য, আগামী ২৯ জুন মুক্তি পাচ্ছে এই বহু প্রতীক্ষিত ছবিটি।

সূত্র : ভারতীয় গণমাধ্যম