যে ৩ কারণে বিপিএলে কপাল পুড়বে তামিমের কুমিল্লার

ক্রিকেট খেলাধুলা

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম আসরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের আইকন হিসেবে থাকছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল। মূলত দলে ব্যাটিং কম্বিনেশন ফিরিয়ে আনতে এবং কোচ সালাউদ্দিনের পরামর্শে মাশরাফির পরিবর্তে তামিমকে দলে টেনেছে ফ্রাঞ্চাইজিটি। বাংলাদেশ ক্রিকেটে টপঅর্ডার ‘রক্ষক’ হিসেবে বেশ সুনাম তামিমের। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্রিকেটেও বেশ মনযোগী তামিম। যেকোনো বাজে পরিস্থিতিতে চুপিসারে খেলে যেতে পারেন অনায়াসে।

পঞ্চম আসর উপলক্ষ্যে শক্তিশালী টিম গঠন করলেও বেশ কিছু দূর্বলতা রয়েছে দলটি। গোনিউজের পাঠকদের জন্য সেগুলো তুলে ধরা হলো।

অধিনায়কত্ব: বিপিএলে একবারের চ্যম্পিয়ন দলটির সবচেয়ে বড় সমস্যা দেখা দিতে পারে অধিনায়কত্ব নিয়ে। কারণ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কতৃপক্ষ দলটির অধিনায়কত্ব ভার দিতে পারেন তামিম ইকবালের ওপর। কিন্তু এ ব্যাপারে মোটেও দক্ষ নন জাতীয় দলের ড্যাশিং ওপেনার। দলের হয়ে খুব একটা অধিনায়কত্ব করতে দেখা যায়নি তাকে।

টি-২০ স্পেশালিষ্ট দেশি ব্যাটসম্যানের অভাব: বিপিএলের পঞ্চম আসরে কুমিল্লার প্রধান টার্গেট ব্যাটিং কম্বিনেশনটা ঠিক রাখা। আর সে জন্যই মূলত তামিমকে দলে টেনেছে দলটি। তামিম ছাড়াও দলটিতে দেশি ক্রিকেটার হিসেবে রয়েছেন ইমরুল কায়েস, ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম সেরা উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস, দুই অভিজ্ঞ অলক কাপালি এবং রকিবুল হাসান। এক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, একমাত্র অধিনায়ক তামিম-কাপালি ছাড়া দেশীও ক্রিকেটার ইমরুল-লিটন ও রকিবুল মূলত ওয়ানডে ক্রিকটার হিসেবে স্বীকৃত।

অনভিজ্ঞ পেস আক্রমণ: দলটির পেস বিভাগে রয়েছেন পাকিস্তানের হাসান আলী, রুম্মন রইস ও ফাহিম আশরাফ। এছাড়া দেশীয়দের মধ্যে রয়েছেন আল আমিন হোসেন ও মেহেদী হাসান রানা। নামের তালিকা দেখে সুস্পষ্ট যে অভিজ্ঞ পেসার দলটিতে নেই। পাকিস্তানের হাসান আলী-ফাহিম আশরাফ ও আল আমিন হোসেন এরা সবাই উদীয়মান তারকা। একটি দলের পেস বিভাগ নেতৃত্ব দেয়ার জন্য হলেও প্রয়োজন অভিজ্ঞ পেসারের। সেক্ষেত্রে পিছিয়ে দলটি।

দলীয় তথ্য :
নাম : কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স
অংশগ্রহণ : ২ বার ( এবারের আসর সহ ৩ বার হবে )
সর্বোচ্চ সাফল্য : চ্যাম্পিয়ন
শিরোপা : ১
রানার্সআপ : ০
শ্লোগান : উইন অর উইন ( জয় অথবা জয় )

প্রশাসনিক এবং কোচিং স্টাফ :
স্বত্বাধিকারী : লিজেন্ড স্পোর্টিং
চেয়ারম্যান : নাফিসা কামাল
টিম ম্যানেজার : খালেদ মাসুদ পাইলট
প্রধান কোচ : মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন
অধিনায়ক-তামিম ইকবাল
সহকারি-ইমরুল কায়েস

প্রসঙ্গত, আগামী ৪ নভেম্বর থেকে শুরু হবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের পঞ্চম আসর। এবারের আসরে ম্যাচের সংখ্যা ৬০। প্রথম পর্ব, এলিমিনেটর, প্রথম কোয়ালিফায়ার, দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ও ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে।

বিপিএলের গ্রাউন্ডস স্বত্ব পেয়েছে ঢাকা কমিউনিকেশন। ২০১৭ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত বিপিএলের তিনটি আসরের সম্প্রচার স্বত্ব পেয়েছে ইমপ্রেস-মাত্রা কনসোর্টিয়াম। তাদের মাধ্যমে গাজী টিভি এবং মাছরাঙা টেলিভিশনের কাছে তিন আসরের সম্প্রচার স্বত্ব বিক্রি করেছে।