সাকিবের কারনেই ম্যাচ জিতেছে হায়দ্রাবাদ!সংবাদ সম্মেলনে এসে বললেন অধিনায়ক !!

ক্রিকেট খেলাধুলা

১৩০ রান করেও যে ম্যাচ জেতা যায় এটা গত ম্যাচে দেখিয়েছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। তারা সেটা করে দেখালেন আবারো। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে ১৩৩ রান নিয়ে অবিশ্বাস্য জয় তুলে নিল সাকিব আল হাসানের দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। অাজ অসাধারণ বোলিং করেছেন সাকিব আল হাসান। তিন ওভারে ১৮ রানের বিনিময়ে মূল্যবান দুটি উইকেট তুলে নিয়েছেন তিনি। মূলত সাকিব এবং রাশিদ খানের স্পিনে জিতেছে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।
১৩৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা চমৎকার করে দুই ওপেনার কুশাল রাহুল এবং ক্রিস গেইলের। ২ জন মিলে স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ৫৫ রান। রাশিদ খানের বলে ৩২ রানে আউট হন কুশল রাহুল।

এর পরের ওভারে দলীয় ৫৭ রানের সময় ক্রিস গেইলকে ২৩ রানে আউট করেন থাম্পি। সেই থেকে শুরু এরপর নিয়মিতভাবে উইকেট হারায় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। সাকিব, রাশিদ খান, সন্দ্বীপ শর্মার বোলিং তোপে পড়ে পাঞ্জাব।

ইনিংসের নিজের প্রথম ওভারে ৬ রান এবং নিজের দ্বিতীয় বার এসে প্রথম বলে আগারওয়ালকে অাউট করেন সাকিব। ওই ওভারে তিন রানের বিনিময়ে উইকেট তুলে নেন সাকিব। তবে দলীয় ৮২ রানের মাথায় করুন নায়ারকে আউট করে খেলায় ফিরে আনেন রাশিদ খান। নিজের তৃতীয় ওভারে এসে অ্যারোন ফিঞ্চকে অাউট করেেন সাকিব। এরপরের ১৬ তম ওভারে জোড়া অাঘাত করে সন্দ্বীপ শর্মা। এরপরে রশিদ খানের স্পিন ভেলকিতে আউট হন অধিনায়ক এশিইন। ১৯.২ ওভারে ১১৯ রানে অলঅাউট হয় পাঞ্জাব।

সাকিব আল হাসান তিন ওভারে ১৮ রানে ২ উইকেট লাভ করেন। এবং রাশিদ খান ৪ ওভারে ১৯ রানে ৩ উইকেট লাভ করেন।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলে আজ কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেছে সাকিব আল হাসানের দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। শুরুতেই ব্যাটিংয়ে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে সাকিবের এই দলটি।

প্রথম ওভারেই এশিএনের এর হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান উইলিয়ামসন। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে দলকে বিপদে রেখে আউট হয়ে যান শিখর ধাওয়ান। আজকে থেকে এসে তেমন সুবিধা করতে পারছিলেন না সাকিব নিজের দ্বিতীয় বলেই দেন তিনি তবে নো বলের কারণে ভাগ্যে বেঁচে যান সাকিব আল হাসান। ২৭ রানে ৩ উইকেট হারানো হায়দরাবাদকে পথ দেখান সাকিব আল হাসান।

মনিষ পান্ডিয়াকে সাথে নিয়ে দলকে নিয়ে যান ৭৯ রানে। কিছুটা ধীরগতিতে হলেও ২৯ বলে ২৮ রান করে মুজিবুর রহমানের বলে ছক্কা মারতে গিয়ে আউট হন সাকিব। তবে অন্যপাশ থেকে ফিফটি তুলে নেন মনিশ পান্ডে। মনিশ পান্ডে ৫৪ এবং পাঠানের ২১ রানের উপর ভর করে ২০ ওভার শেষে ১৩২ রান করেছেন জায়দাদ। বল হাতে ৫ উইকেট নিয়েছেন রাজপুথ।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ একাদশ: শিখর ধাওয়ান, কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটরক্ষক), মনিশ পান্ডে, সাকিব আল হাসান, ইউসুফ পাঠান, মোহাম্মদ নবী, রশীদ খান, সন্দ্বীপ শর্মা, বাসিল থাম্পি, সিদ্ধার্থ কাউল।

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব একাদশ: ক্রিস গেইল, লোকেশ রাহুল (উইকেটরক্ষক), মায়াঙ্ক আগারওয়াল, করুন নায়ার, অ্যারোন ফিঞ্চ, তিওয়ারি, রবীচন্দ্রন অশ্বিন (অধিনায়ক), অ্যান্ড্রু টাই, বারিন্দের স্রান, অঙ্কিত রাজপুত, মুজিব উর রহমান