সাবেক বাংলাদেশ অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল ফেসবুক ব্যবহারকারীদের এমন কাণ্ডজ্ঞানহীন আচরণে রীতিমত বিরক্ত

অন্যান্য ক্রিকেট খেলাধুলা বাংলাদেশ

বিয়ে করেছেন ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে।আর কন্যার বাবা হযেছেন ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে। ভাইয়া, আপনি কি বিবাহিত? তারপরেও তাকে বারবার এমন প্রশ্নবানে পড়তে হয় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে। এমনকি মেয়ের সঙ্গে নিজের ছবি পোস্ট করার পরও!

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের এমন কাণ্ডজ্ঞানহীন আচরণে রীতিমত বিরক্ত সাবেক বাংলাদেশ অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। বউ বাচ্চা থাকার পরও তাকে কেন এমন প্রশ্ন করা হচ্ছে? প্রশ্ন রাখেন আশরাফুল।

ভবিষ্যতে এই প্রশ্ন করে যেন তাকে বিরক্ত না করা হয় তার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন

আশরাফুল লিখেন,‘ ফেসবুকে বৌ বাচ্চার ছবি দেয়ার পরেও যদি গণহারে ফেসবুকে মেসেজ আসে….ভাইয়া, আপনি বিবাহিত না অবিবাহিত….. তবে সেটা চূড়ান্ত রকমের বিরক্তিকর ব্যাপার। যেহেতু আমি ক্রিকেটার আমার ক্রিকেট নিয়ে আপনাদের আগ্রহ থাকতে পারে। বিয়ে করেছি নাকি করিনি, এটা নিয়ে এত আগ্রহের কারণ বুঝলাম না।’

‘মাঝে মাঝে একটা দুইটা এরকম মেসেজ আসতে পারে। তাই বলে প্রতিদিন এই রকম অসংখ্য মেসেজ? আমি জাস্ট হাপিয়ে উঠেছি। হ্যাঁ, আমি বিবাহিত এবং আরিবা নামে আমার একটি মেয়ে আছে (যার সাথে বর্তমান প্রোফাইল পিকচার)। এবার আমাকে এই প্রশ্ন থেকে মাফ দেন।’