সিলেটের মূল শক্তি দেশি ক্রিকটাররাই

ক্রিকেট খেলাধুলা

বিপিএলের পঞ্চম আসরকে সামনে রেখে অনুশীলন করে চলেছেন দলটি। সঙ্গী পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি, মোহাম্মদ শরীফ, তাইজুল হোসেনরা।

আজ মঙ্গলবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলন সেরেছে সিলেট সিক্সার্স। দুপুর ২টা থেকে অনুশীলন করেন ক্রিকেটাররা। লিয়াম প্লাঙ্কেট, আন্দ্রে ফ্লেচার, রিচার্ড লেভি, বাবর আজমের মতো তারকারা থাকলেও সিলেটের মূল শক্তি তাদের দেশি রিক্রুটরা। সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, শুভাগত হোম, নাবিল সামাদ। বেশ ভালো ব্যাটিং লাইন আপ বলতে হবে। এর সঙ্গে বাবর আজম, আন্দ্রে ফ্লেচার বা লেভিদের ব্যাটিং শক্তি যোগ হলে টুর্নামেন্টে বাকি দলগুলোকে বেশ ভালোই টক্কর দিতে পারবে সিলেট।

একটা দিক থেকে অন্যদের চেয়ে বেশ পিছিয়ে সিলেট। সেটা হলো, দলটিতে নেই তারকা ক্রিকেটার। ঢাকায় আফ্রিদি-ওয়াটসন, রংপুরে গেইল-মালিঙ্গা, কুমিল্লায় জস বাটলার-মারলন স্যামুয়েলসদের মতো তারকা রয়েছেন। এ ক্ষেত্রে সিলেটে নেই তেমন কোনো তারকা। সে জন্য বাবর আজম, দাসুন শানাকা, চতুরঙ্গ ডি সিলভাদের মতো তরুণদেরই ওপর ভরসা করতে হচ্ছে তাদের।

বিপিএলে সিলেটের রেকর্ড খুব একটা ভালো নয়। মাত্র একবারই প্লে অফ খেলেছে দলটি। সেটাও ২০১২-১৩ মৌসুমে। গত মৌসুমে সিলেটের পারফরম্যান্স ছিল একেবারে খারাপ। মাত্র তিনটি ম্যাচে জয় পেয়েছিল সিলেটের ফ্যাঞ্চাইজিটি। মালিকানা বদলে আবার নতুন করে দল গুছিয়েছে সিলেট। তবে তারকা টানার ক্ষেত্রে সবার চেয়ে পিছিয়ে ছিল দলটি। দলে একঝাঁক তরুণ ক্রিকেটার। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত এবারের আসরে পথচলাটা কতটা মসৃণ হয় সিলেটের।

সিলেট সিক্সার্স :
স্থানীয় : সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, তাইজুল ইসলাম, নুরুল হাসান, আবুল হাসান, শুভাগত হোম চৌধুরী, কামরুল ইসলাম রাব্বি, নাবিল সামাদ, মোহাম্মদ শরীফ, ইমতিয়াজ হোসেন, শরিফউল্লাহ।

বিদেশি : দাসুন শানাকা, ভানিদু হাসারাঙ্গা, লিয়াম প্লানকেট, রস হুইটলি, উসমান খান শেনওয়ারি, বাবর আজম, আন্দ্রে ফ্লেচার, ক্রিসমার সান্টকি, আন্দ্রে ম্যাকার্থি, ডেভি জ্যাকবস, রিচার্ড লেভি, চতুরঙ্গা ডি সিলভা, গোলাম মুদাসসির খান।