সুপ্রিম কোর্টে আজ সালমানের ভাগ্য নির্ধারণ

বিনোদন

সালমান খানের হিট অ্যান্ড রান মামলায় আজ মঙ্গলবার ভারতের মহারাষ্ট্র সরকারের বয়ান শুনবে সুপ্রিম কোর্ট। মামলায় বোম্বে হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছিল, তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল মহারাষ্ট্র সরকার।

২০০২ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর বান্দ্রা হিল রোডে সালমানের গাড়ির ধাক্কায় পথচারীর মৃত্যু হয়। ঘটনায় সুপারস্টারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়। মামলার নিষ্পত্তি হয় ২০১৫ সালের ৬ মে। দেশটির সেশন কোর্ট সালমানকে দোষী সাব্যস্ত করে ও সাজার কথা জানায়। কিন্তু আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন সালমান খান। তারপর থেকে চলছে মামলা। ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে রায় দেয় বোম্বে হাইকোর্ট। উপযুক্ত তথ্য প্রমাণের অভাবে সালমান খানকে বেকসুর খালাস করে আদালত।

কিন্তু মহারাষ্ট্র সরকার এই রায় মেনে নেয়নি। সালমান যে সত্যিই দোষী, তা প্রমাণ করতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়। বোম্বে হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ২০১৬ সালের ৫ জুলাই সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করে মহারাষ্ট্র সরকার। আজ সেই মামলার শুনানি হওয়ার কথা।

ভারতের কলকাতা২৪ পত্রিকার খবরে বলা হয়, হিট অ্যান্ড রান মামলা ছাড়া আরও দুটি মামলা চলছে সালমান খানের বিরুদ্ধে। একটি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলা ও একটি বেআইনি অস্ত্র মামলা। রাজস্থানে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিং চলাকালীন কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ ওঠে সালমানের বিরুদ্ধে। এও অভিযোগ ওঠে, যে রাইফেলটি দিয়ে তিনি হরিণ হত্যা করেছিলেন, সেটি ছিল বেআইনি।