স্পেনের গোল বন্যায় উড়ে গেল কোস্টারিকা

খেলাধুলা ফুটবল

প্রীতি ম্যাচে কোস্টারিকাকে উড়িয়ে দিয়েছে স্পেন। ডেভিড সিলভার জোড়া গোলে ৫-০ গোলের বড় জয় পেয়েছে লা রোজা। এদিকে, আফ্রিকান অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আইভরি কোস্টকে ২-০ গোলে হারিয়ে মূলপর্ব নিশ্চিত করেছে মরক্কো। ইউরোপিয়ান অঞ্চলের ম্যাচে ডেনমার্কের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে আয়ারল্যান্ড।

১৯৯৮ সালে কোয়ার্টার ফাইনালের পর বিশ্বকাপে আর বড় কোন সাফল্য পায়নি ডেনমার্ক। গেল আসরে মেলেনি বিশ্বকাপের টিকিট। ২০১০ সালে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায়। দীর্ঘদিন পর আবারো বিশ্বকাপের মঞ্চে ওঠার হাতছানি ডেনিশ ডায়নামাইটদের সামনে।

তেলিয়া পার্কেনের চিরচেনা কন্ডিশনে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের আশা ছিলো সমর্থকদের। কিন্তু হতাশা নিয়েই শেষ পর্যন্ত ফিরতে হয়েছে তাদের। নির্ধারিত সময়ে শত চেষ্টা করেও আইরিশ গোলরক্ষককে পরাস্ত করতে পারেননি সিমন কায়েররা। আর তাতেই নিষ্প্রাণ ড্র নিয়ে ফিরতে হয়েছে দু’দলকে। বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করতে আগামী বুধবার ফিরতি লেগে ডাবলিনে মুখোমুখি হবে দু’দল।

এদিকে, আয়ারল্যান্ড ও ডেনমার্ক না পারলেও, আফ্রিকা অঞ্চল থেকে বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করেছে মরক্কো। দুই ডিফেন্ডার নাবিল দিরার ও মেহেদী বেনেতিয়ার গোলে, আইভোরিকোস্টকে হারিয়েছে তারা। এ জয়ে ১৯৯৮ সালের পর আবারো বিশ্বকাপে দেখা আফ্রিকার এই দেশটিকে।

বিশ্বকাপ যাদের নিশ্চিত হয়ে গেছে তারা ব্যস্ত প্রীতি ম্যাচ নিয়ে। স্তাদে লা রোসালেডাতে কোস্টারিকার মুখোমুখি হয়েছিলো স্পেন। শুরু থেকেই আধিপত্য স্বাগতিকদের। ম্যাচের ৬ মিনিটেই জর্ডি আলবার গোলে লিড নেয় লা রোজা। ২৩ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ আলভারো মোরাতা। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে প্রতিটি ম্যাচেই দাপট দেখিয়েছেন চেলসির এ স্ট্রাইকার। এ ম্যাচেও দুর্দান্ত পারফর্ম করে স্বাগতিক সমর্থকদের মাতিয়ে রাখেন তিনি।

এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় লোপেতেগুইয়ের শীষ্যরা। বিরতি থেকে ফিরে আরো আগ্রাসী স্পেন। কনকাকাফ অঞ্চলের দলটিকে নিয়ে একরকম ছেলেখেলা খেলেছে ২০১০ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। এরপর ৫১ ও ৫৫ মিনিটে দুটি চমৎকার গোল করে দলকে ৪-০ তে এগিয়ে দেন ডেভিড সিলভা। ৩৫ গোল নিয়ে নিয়ে জাতীয় দলের হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় চতুর্থ এখন ৩১ বছর বয়সী এ মিডফিল্ডার।