স্মিথ-ওয়ার্নারের অনুপস্থিতি ভোগাচ্ছে টিম অস্ট্রেলিয়াকে

ক্রিকেট খেলাধুলা

বল টেম্পারিং ঘটনায় পুরো অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট বিপর্যস্ত। এমন টালমাটাল অবস্থায় গতকাল জোহানেসবার্গে শেষ টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাঠে নেমেছে অসিরা। টেস্ট শুরুর আগেই মরার উপর খাঁড়ার ঘাঁয়ের মতো দুঃসংবাদ এসে হাজির হয়েছে ইনজুরির কারণে খেলতে পারছেন না দলের সেরা পেসার মিচেল স্টার্ক।

এই ম্যাচেই আবার নতুন অধিনায়ক টিম পেইনের অধীনে খেলতে নেমেছে অস্ট্রেলিয়া। বলতে গেলে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে নিষিদ্ধ থাকা স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার আর ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে বাদ দিয়ে ক্রিকেটে নতুন পথচলাই শুরু হলো অসিদের। আর সেই পথচলাটা যে মসৃণ হবে না তা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার।

মাঠের লড়াইয়ে ঠিক তেমন চিত্রই দেখা যাচ্ছে। টেস্ট সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের ভালোই ভোগাচ্ছেন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানরা। আইডেন মার্করামের দুর্দান্ত শতকে ভর করে প্রথম দিন শেষে ছয় উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে ৩১৩ রান জমা করেছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা।

টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসি। শুরু থেকেই দারুণ ব্যাটিং করে ২১৬ বলে ১৫২ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেছেন ওপেনার মার্করাম। টপ অর্ডারের অন্য ব্যাটসম্যানরা অবশ্য জ্বলে উঠতে পারেননি প্রত্যাশা অনুযায়ী। তবে এবি ডি ভিলিয়ার্স খেলেছেন ৬৯ রানের গুরুত্বপূর্ণ এক ইনিংস। হাশিম আমলার ব্যাট থেকে এসেছে ২৭ রান। অধিনায়ক দু প্লেসি ফিরে গেছেন রানের খাতা না খুলেই। প্রথম দিন শেষে ২৫ রান করে অপরাজিত আছেন টেম্বা বাভুমা। ৭ রান নিয়ে উইকেটে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার আরেক নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি কক।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে তিন উইকেট নিয়েছেন প্যাট কামিন্স, দুই উইকেট নিয়েছেন অভিষিক্ত চ্যাড সেয়ার্স।