হাথুরুসিংহের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে, তবে…

ক্রিকেট খেলাধুলা

বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করার পর সব ধরণের যোগাযোগই বন্ধ করে দিয়েছিলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। ফোন ধরেননি, ইমেইলের জবাবও দেননি। তবে অবশেষে তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পেরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কোচের সঙ্গে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন সুজনের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তবে তার সঙ্গে কি আলোচনা হয়েছে তা জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করেন মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের বিসিবি কার্যালয়ে শনিবার জালাল ইউনুস কোচ প্রসঙ্গে বললেন, ‘তার (হাথুরুসিংহে) সঙ্গে আমাদের প্রধান নির্বাহীর সাথে আলাপ আলোচনা হয়েছে টেলিফোনে, তিনি জয়েন করবেন কিনা করবেন না এরকম কোনো আলাপ হয়নি।’ তবে কি আলোচনা হয়েছে তা জানাননি জালাল, ‘আমি এই মুহূর্তে বলতে পারব না তার সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে।’ শেষ পর্যন্ত যদি হাথুরুসিংহে ফিরে না আসেন তাহলে নতুন কোচের সন্ধানেই নামবে বিসিবি, ‘এর মধ্যে যদি না আসে, ডিসিশন হয়ে যায় না আসে তাহলে আমরা নতুন একজন কোচের জন্য চেষ্টা শুরু করব।’

তবে নতুন কোচ খোঁজার জন্য খুব বেশি তাড়াহুড়া করবে না বিসিবি। সময় নিয়ে একজন ভালো মানের বিদেশি কোচ নিয়োগ দিবেন বলে জানালেন জালাল ইউনুস। এর মধ্যে একজন দেশি কোচকে অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্ব দিতে পারেন বলেও জানান তিনি, ‘এর জন্য আমরা খুব একটা তাড়াহুড়া করব না। সময় নেব। দু এক মাস সময় লাগতে পারে। আমাদের দলের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পারে, আর উপমহাদেশের মানসিকতার সঙ্গে পরিচিত কোনো কোচ হলে তো খুব ভালো হয়। এর মধ্যে হয়তো লোকাল কোনো কোচ দায়িত্ব নিতে পারেন।’

তাড়াহুড়া না করে বেশি সময় নিয়ে কোচ নিয়োগের কারণটাও জানালেন জালাল ইউনুস, ‘সে যদি না আসে নিজেদের প্রস্তুতি নিয়ে রাখা ভালো। যাকে আমরা নিয়োগ দেব, যেন আমরা ভালো কোচ নিয়ে আসতে পারি। ভালো কোচ কিন্তু নেই, পাওয়াটা খুব একটা সহজ নয়। ওরকম পেশাদার কোচের বাজারে ক্রাইসিস আছে। সেজন্য আমরা চিন্তা করছি আমরা সময় নেব। তিন মাসের মধ্যে যদি ওই রকম কিছু জানা না যায় তাহলে আমরা চেষ্টা করব।’

হাথুরুসিংহের মতো এবারও উপমাহদেশ থেকেই কোচ নিয়োগের কথা ভাবছে বিসিবি। উপমহাদেশের মানসিকতা বাংলাদেশের সঙ্গে মিলে বলেই এমন সিদ্ধান্ত। তবে এর বাইরেও কোচ খুঁজবেন বলে জানালেন জালাল, ‘নিজেদের মধ্যে আলাপ আলোচনা করে এই (কোচ নিয়োগের) সিদ্ধান্ত হবে। উপমহাদেশের মানসিকতা মানে আমাদের সংস্কৃতির সাথে একটু সামঞ্জস্য থাকে। এর মানে এই নয় যে উপমহাদেশের বাইরে খুঁজব না। আমাদের লক্ষ্য এমন একজন কোচ যে দলের সঙ্গে ভালোভাবে কাজ করতে থাকে।’